ঢাকা, ২৪ জানুয়ারি সোমবার, ২০২২ || ১১ মাঘ ১৪২৮
good-food
১৯১

চোখ ভালো রাখতে…

লাইফ টিভি 24

প্রকাশিত: ০২:৫২ ১২ নভেম্বর ২০২১  

অল্প বয়স থেকেই কম্পিউটার এবং মোবাইলের দোরগোড়ায় বসে থাকতে থাকতে এখন বেশিরভাগ মানুষের চোখের পাওয়ার কমে আসছে। যাদের বয়স একটু বেশিই তাদের কিন্তু সময়ের সঙ্গে সঙ্গেই চোখের পাওয়ার কমা বেশ স্বাভাবিক ব্যাপার। তার সঙ্গেই রয়েছে বেশ কিছু বদ অভ্যাস যেমন? অন্ধকারে ফোন ঘাটা থেকে একদম সামনের স্ক্রিনে কম্পিউটারের দিকে একদৃষ্টে তাকিয়ে থাকা কিন্তু বেশ ভাল পরিমাণে চোখের ক্ষতি করতে পারে। 

 

ছোট থেকে বড় এখন কারোরই রোগের শেষ নেই। তবে চক্ষু বিশেষজ্ঞ ডা: মনোজ রাই মেহেতা চোখের দৃষ্টি সচল এবং সুন্দর রাখতে বেশ কয়েক টিপসের উল্লেখ করেন। দুটিভাগে ভাগ করেছেন তিনি। যথারীতি অফিসের সঙ্গে সাধারণ জীবনের অভ্যাসের বেশ কিছু বৈচিত্র রয়েছে। তাহলে চলুন এই বিষয়ে একটু আলোকপাত করে নি? 

 

প্রথমে দেখে নেই অফিসের আবদ্ধতা কী কী নিয়ম মেনে চলতে শেখায়

অফিসের কাজ করার সময় লেখা অথবা পড়ার সময় পিঠ সোজা রেখে দরকার পড়লে একটি নরম বালিশের সাপোর্ট রেখেও বসতে পারেন। ৯০° অ্যাঙ্গেল রেখেই সবসময় বসার চেষ্টা করবেন। 

 

সবসময় খেয়াল রাখবেন যেন লেখার সময় আলো বইয়ের ওপর সরাসরি ভাবে পড়তে থাকে এবং তার সঙ্গেই আলোর প্রবাহ যেন ডানদিক থেকে বাঁদিক একরকম ভাবেই প্রসারিত হয়। লেখার সময় উল্টোটি। ফলেই ছায়া সৃষ্টি হবে না এবং আপনার চোখে জোর পড়বে না। 

 

চোখে সরাসরি কোনও আলো যেন না পড়ে সে কারণেই অফিস টেবিলে ব্যকগ্রাউন্ড লাইট এবং ফোকাসড লাইট রাখবেন। স্ক্রিন থেকে দূরত্ব মোটামুটি ভাবে ৩০ থেকে ৫০ সেমি হওয়া উচিত।  কম্পিউটারের স্ক্রিনে কোনও আবছায়া না পড়াই ভাল। ফলত ব্যকগ্রাউন্ড জুড়ে কোনও জোরালো আলো এবং চকচকে দেওয়াল রাখা উচিত নয়। ম্যাট ফিনিশ দেওয়াল হলে সবথেকে বেশি সুবিধে। 

 

এবার দেখে নেই সাধারণ কি অভ্যাসগুলো মানুষকে অবশ্যই রাখতে হবে

অবশ্যই সঠিক পরিমাণে ঘুমান খুব দরকার এবং অন্ধকার ঘরেই ঘুমাবেন। অল্প আলো কিন্তু ঠিকভাবে ঘুমাতে দেয় না।  ঘুমাতে যাওয়ার আগে এবং ঘুম থেকে উঠেই চোখ ভাল করে ঠান্ডা পানি দিয়ে ধুয়ে নিন। হাত সাবান দিয়ে ভাল করে ধুবেন। দুহাত জড়ো করে পানি নিন এবং তাতে চোখ স্পর্শ করে পাতা খুলে তাকানোর চেষ্টা করুন। এতে চোখ ভাল থাকবে এমনকি ধুলোবালি সব পরিষ্কার হয়ে যাবে। 

 

চোখের একেবারে কোনায় কাজল কিংবা পেন্সিল দেবেন না। অথবা আপনার কাজল এবং চোখের মেকআপ অন্য কারওর সঙ্গে শেয়ার করবেন না। যদি আপনি চোখের ড্রপ ব্যবহার করে থাকেন তবে, ১৫ দিন হলেই সেটি ব্যবহারের সম্পর্কে ভাবনা চিন্তা করুন।