ঢাকা, ০২ ডিসেম্বর শুক্রবার, ২০২২ || ১৮ অগ্রাহায়ণ ১৪২৯
good-food
১৩৭

নদীতে ভেসে উঠল ২০ যুদ্ধজাহাজ

লাইফ টিভি 24

প্রকাশিত: ১৫:২২ ২২ আগস্ট ২০২২  

বিশ্বের নানা প্রান্তে তীব্র আকার ধারণ করেছে খরা। এতে অনেক নদী শুকিয়ে যাচ্ছে। ব্যতিক্রম নয় দানিয়ুবও। বিশ্বখ্যাত নদীটির পানিও সর্বনিম্ন স্তরে নেমে গেছে। গত ১ শতাব্দীর মধ্যে যা রেকর্ড।

 

এ নদীর পানি শুকিয়ে যাওয়ায় ভেসে উঠছে দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের অসংখ্য যুদ্ধজাহাজ। সেসময় জার্মানির যুদ্ধজাহাজ ডুবে গিয়েছিল। তুরস্কের সংবাদমাধ্যম টিআরটি ওয়ার্ল্ড এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে।

 

সাম্প্রতিক বছরগুলোর মধ্যে সবচেয়ে প্রকট খরার মুখোমুখি হয়েছে ইউরোপ। এতে গত এক শতাব্দীর মধ্যে দানিয়ুব নদীর পানি সর্বনিম্ন স্তরে পৌঁছেছে। এতে সার্বিয়ার নদীবন্দর শহর প্রাহোভোর কাছে দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের সময় ডুবে যাওয়া কয়েক ডজন জার্মান যুদ্ধজাহাজ ভেসে উঠেছে।

১৯৪৪ সালে সাবেক সোভিয়েত বাহিনীর আক্রমণে দানিয়ুব নদীর তীরে নাৎসি জার্মানির কৃষ্ণসাগর বহরের শত শত যুদ্ধজাহাজ ডুবে যায়। সেগুলোকে পরে আর উদ্ধার করা সম্ভব হয়নি। এখন পানি কমে যাওয়ায় ভেসে উঠছে এসব। 

যুদ্ধজাহাজগুলোর কারণে প্রায়ই নদীপথে অন্যান্য জাহাজের চলাচল ব্যাহত হতো। এমনকি এখনো পানির স্তর কম থাকলে ইউরোপের অন্যতম বৃহৎ এ নদীপথে নৌ-চলাচল বাধাগ্রস্ত হয়।

 

ইউরোপজুড়ে সৃষ্ট চলতি বছরের খরায় পূর্ব সার্বিয়ার প্রাহোভোর কাছে দানিয়ুব নদীতে ২০টিরও বেশি যুদ্ধজাহাজ ভেসে উঠেছে। সেগুলোতে কয়েক টন গোলাবারুদ এবং বিস্ফোরক থাকতে পারে। ফলে এ নৌপথ এখন বিপজ্জনক হয়ে উঠেছে।