ঢাকা, ১১ ডিসেম্বর বুধবার, ২০১৯ || ২৬ অগ্রাহায়ণ ১৪২৬
LifeTv24 :: লাইফ টিভি 24
কৃষকরা কী শুধু ঠকেই যাবেন?

কৃষকরা কী শুধু ঠকেই যাবেন?

নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যদ্রব্য ও জিনিসপত্রের বাজার এখন একশ্রেণির অসাধু ও অধিক মুনাফালোভী ব্যবসায়ীদের নিয়ন্ত্রণে। মধ্যস্বত্বভোগী ফড়িয়া ব্যাপারিরাই সবকিছুর দাম নিয়ন্ত্রণ করছে।

০৭:৫০ পিএম, ৯ ডিসেম্বর ২০১৯ সোমবার

সড়কের আনন্দ, বেদনা ও আতঙ্ক

সড়কের আনন্দ, বেদনা ও আতঙ্ক

আমি নিজেকে যে কয়েকটি বিষয়ের বিশেষজ্ঞ হিসেবে দাবি করতে পারি, তার একটি হচ্ছে ‘বাংলাদেশের সড়ক পথের নিরলস যাত্রী’। শুধু যে মুখের কথায় দাবি করছি তা নয়, আমি তার প্রমাণও দিতে পারবো। যে দুমড়ানো মুচড়ানো মাইক্রোবাসটিতে আমি সারা বাংলাদেশ চষে বেড়িয়েছি (এবং আলাদাভাবে ঢাকা-সিলেট কিংবা সিলেট-ঢাকা করেছি) তার কারণে যে দূরত্ব অতিক্রম করতে হয়েছে, সেটি যদি শুধু একদিকে করা হতো তাহলে এর মাঝে পুরো পৃথিবীটাকে কমপক্ষে ছয়বার পাক খেয়ে আসতাম! 

১১:১৭ পিএম, ২৯ নভেম্বর ২০১৯ শুক্রবার

দুটির বেশি নয়, একটি হলে ভালো
নয়া বৌমাকে শাশুড়ির প্রথম সবক

দুটির বেশি নয়, একটি হলে ভালো

পেঁয়াজের সাথে চোখের জলের বরাবর ই একটা সম্পর্ক ছিল । পেঁয়াজ কাটতে গিয়ে চোখের জলে, নাকের জলে হয়েছেন অনেকে - এখন হচ্ছেন পেঁয়াজ কিনতে গিয়ে। পেঁয়াজ নাকি এখন হালি করে কিনতে হয়। দুই কেজি পেঁয়াজ কিনতে গেলে ন্যাশনাল আইডি কার্ড দেখাতে হবে, এমন দিন আসছে সামনে।

১২:০৯ পিএম, ২০ নভেম্বর ২০১৯ বুধবার

দেশ তার হারায় গৌরব

দেশ তার হারায় গৌরব

শতবর্ষেরও আগে ১৯০৭ সালে রবীন্দ্রনাথ লিখেছিলেন,  ‘সকল দেশের সকল সমাজেই ত্রুটি ও অপূর্ণতাআছে, কিন্তু দেশের লোক স্বজাতির প্রতি ভালবাসার টানে যতক্ষণ এক থাকে, ততক্ষণ পর্যন্ত তার বিষ কাটিয়ে চলতে পারে। পচবার কারণ হাওয়ার মধ্যেই আছে। কিন্তু বেঁচে থাকলেই সেটা কাটিয়ে চলি, মরে গেলেই পচে উঠিত।’ 

আজকের বাংলাদেশ সেই অবস্থান থেকে নিজের মাথা উঁচিয়ে দাঁড়ানোর সময় তার সমস্ত অর্জনকে ক্ষুণ করে একটি অস্থিতিশীল পরিস্থিতির দিগন্ত তৈরি করা হচ্ছে।

০৯:৫৮ পিএম, ২ নভেম্বর ২০১৯ শনিবার

জান্নাতীর মুখের হাসি

জান্নাতীর মুখের হাসি

বেশ কিছু দিন আগের কথা। একটি প্রতিষ্ঠান শিশুদের নিয়ে একটি অনুষ্ঠানে আমাকে আমন্ত্রণ জানিয়েছে। আমি নিজেকে খুব সৌভাগ্যবান মনে করি। কারণ, শিশুদের অনেক অনুষ্ঠানে এবং মাঝে মাঝে বাচ্চাদের স্কুলে ছাত্রছাত্রীদের সঙ্গে কথা বলার সুযোগ পাই। তবে এবারে যে অনুষ্ঠানে আমাকে আমন্ত্রণ জানিয়েছে সেটি অন্য যেকোনও অনুষ্ঠান থেকে ভিন্ন। কারণ, এই অনুষ্ঠানে এসেছে ঢাকা শহরের বিভিন্ন বাসার ছোট ছোট গৃহকর্মীরা।

০৬:৪৭ পিএম, ১ নভেম্বর ২০১৯ শুক্রবার

স্বপ্নবাজ তারুণ্যের স্রোতে বিকশিত হোক জরাগ্রস্ত সমাজ-সভ্যতা 

স্বপ্নবাজ তারুণ্যের স্রোতে বিকশিত হোক জরাগ্রস্ত সমাজ-সভ্যতা 

`ওরে  নবীন, ওরে আমার কাঁচা, ওরে সবুজ, ওরে অবুঝ, আধমরাদের ঘা মেরে তুই বাঁচা।‘
কবিগুরু রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর যথার্থই বলেছেন, নবীনদের আঘাত করেই সমাজ সভ্যতার সমস্ত জঞ্জাল সরাতে হবে। দূরন্ত তারুণ্যের আছে সেই দুর্বার শক্তি। 
জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম "যৌবনের গান" প্রবন্ধে বলেছেন "যে চাঁদ সাগরে জোয়ার জাগায় সে তার শক্তি সম্পর্কে আজও না ওয়াকিফ "।  
তাই বুঝি সে শক্তি মাঝে মাঝে পথভ্রষ্ট হয়ে পড়ে,  অপশক্তি, অপযুক্তির খপ্পরে পড়ে যায়।

০৬:২৬ পিএম, ২৬ অক্টোবর ২০১৯ শনিবার

অনুগ্রহ করে জবাব দিন

অনুগ্রহ করে জবাব দিন

আমরা যে বিশ্ববিদ্যালয়ে ঢুকেছিলাম, সেই বিশ্ববিদ্যালয় আর এই বিশ্ববিদ্যালয় এক নয়। সার্বিকভাবে অন্যসব বিশ্ববিদ্যালয়ের মতো এই বিশ্ববিদ্যালয়েরও শিক্ষার মানের অনেক অবনতি ঘটেছে। প্রাচ্যের অক্সফোর্ড খ্যাত এই ঐতিহ্যবাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের এই অবনতি কোনোদিন মেনে নিতে পারিনি।  এই চরম দুঃখবোধ রয়েই গেছে। 

১১:২৬ এএম, ২৫ অক্টোবর ২০১৯ শুক্রবার

ছাত্র রাজনীতি

ছাত্র রাজনীতি

আবরারের হত্যাকাণ্ডটি সবাইকে একটা বিশাল ধাক্কা দিয়ে গেছে। প্রাথমিক রাগ, দুঃখ হতাশা ও ক্ষোভের পর্যায়টুকু শেষ হয়ে যাওয়ার পর আমরা এখন তার পরের পর্যায়টুকু দেখতে পাচ্ছি, যেখানে এই অত্যন্ত হৃদয়বিদারক ঘটনাটি নিয়ে দেশে-বিদেশে অল্প-বিস্তর রাজনীতি করা শুরু হয়েছে। 

১০:২৭ পিএম, ১৯ অক্টোবর ২০১৯ শনিবার

শিশুর প্রতি সহিংসতা কেন?

শিশুর প্রতি সহিংসতা কেন?

শিশুরা সবচেয়ে বেশি সহিংসতা ও প্রতিহিংসার শিকার হচ্ছে।  কারণ শিশুরা  যথোপযুক্ত মনোযোগের বিষয় নয়। শিশুরা আমাদের সমাজে এখনও খুব গুরুত্বপূর্ণ  মানুষ হয়ে উঠতে পারেনি।  যদিও কায়মনোবাক্যে একটি বুলি আওড়ে যাই, শিশুরাই জাতির ভবিষ্যৎ।  এই ভবিষ্যত এতটাই অনিরাপদ এতটাই অরক্ষিত এতটাই মূল্যহীন যে, তাদের জীবন আমাদের কাছে ক্ষোভ প্রশমনের মহড়া বিশেষ। যাদের ইচ্ছে মতো শাসনের তকমা এঁটে  মারপিট করা যায়, অপমান অপদস্ত করা যায়, যখন ইচ্ছে তাদের প্রাণ নিয়ে প্রতিপক্ষকে ঘায়েল করা যায়, কাউকে শিক্ষা দেওয়া যায়,  আবার ঘৃন্য যৌন লালসা মেটানো যায়। 

০৭:২৮ পিএম, ১৬ অক্টোবর ২০১৯ বুধবার

তারা সন্ত্রাসী হয় যে কারণে

তারা সন্ত্রাসী হয় যে কারণে

অস্বচ্ছলদের জন্য স্টাইফেন্ড আর মেধাবীদের জন্য স্কলারশিপ। এই টাকাতেই পড়ার খরচ চলে যেতো প্রত্যন্ত অঞ্চল থেকে আসা বিত্তহীন বা নিম্নবিত্ত শিক্ষার্থীদের। স্বাধীন দেশে গেল ৫০ বছরে বিশ্ববিদ্যালয়ের সব খাতে বাজেট ১০০ গুণ বাড়লেও বাড়েনি ছাত্রকল্যাণ বাজেট। টিউশনির সুযোগ সবার হয়না। জায়গীর প্রথাও উঠে গেছে। তাই শক্তি প্রদর্শনজনিত সুযোগই ভরসা।

০৫:৪৫ পিএম, ১১ অক্টোবর ২০১৯ শুক্রবার

আবরারকে নিয়ে তসলিমার স্ট্যাটাসে তোলপাড়
সমালোচনার জবাবে নতুন পোস্ট

আবরারকে নিয়ে তসলিমার স্ট্যাটাসে তোলপাড়

বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) ছাত্র আবরার ফাহাদের হত্যাকারীদের শাস্তি চেয়ে বৃহস্পতিবার ফেসবুকে স্ট্যাটাস দেন আলোচিত লেখিকা তসলিমা নাসরিন। ওই পোস্টে তিনি লেখেন, ‘আবরারকে যারা পিটিয়েছিল, তাদের শাস্তি অবশ্যই হতে হবে। এর মধ্যেই কয়েকটাকে গ্রেফতার করা হয়েছে।’  একইসঙ্গে তসলিমা এ কথাও লিখেছিলেন, ‘আবরার অফিসিয়ালি শিবির না করলেও শিবিরের মতো চাল চলন আর চিন্তা ভাবনা বানিয়েছিল। তাতে কী! শিবিরদেরও বাঁচার অধিকার আছে। তাকে যারা পিটিয়েছিল, আমার বিশ্বাস, মেরে ফেলার উদ্দেশে পেটায়নি। কিন্তু মাথায় আঘাত লেগেছে, মরে গেছে।’

১২:৩৯ পিএম, ১১ অক্টোবর ২০১৯ শুক্রবার

দানবের জন্ম 

দানবের জন্ম 

বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক হিসেবে আমাকে আমার অনেক ছাত্রছাত্রীর মৃত্যু দেখতে হয়েছে, তরুণ ছাত্র-ছাত্রীর মৃত্যু বেশিরভাগ সময়েই অস্বাভাবিক মৃত্যু - দুর্ঘটনায়, পানিতে ডুবে কিংবা আত্মহত্যা। রাজনৈতিক প্রতিপক্ষের একজনকে প্রকাশ্যে পিটিয়ে মেরে ফেলার একটি ঘটনা ছিল, কিন্তু আমার মনে হয় আবরারের হত্যাকাণ্ডটি তার থেকেও ভয়ানক।

১২:১১ পিএম, ১১ অক্টোবর ২০১৯ শুক্রবার

কেন একসাথে ঝরলো এতগুলো মেধা?

কেন একসাথে ঝরলো এতগুলো মেধা?

পৃথিবীর কোনো বাবা মা-ই চাইবেন না তাঁর সন্তান খুন হোক বা খুনের অভিযোগে অভিযুক্ত হোক। ধনী হোক কাঙ্গাল হোক, পৃথিবীর সমস্ত বাবা-মা’র স্বপ্ন এবং চেষ্টা থাকে তাঁর সন্তানকে দেশের সেরা বিদ্যাপীঠে পড়ানোর। কারো চেষ্টা সফল হয় কারো হয়না। 
যখন কোনো সন্তান উচ্চশিক্ষা লাভের জন্য তাঁর পছন্দের শিক্ষাঙ্গনে ভর্তির সুযোগ অর্জন করেন এবং ভর্তি হন তখন বাবা-মা’র থেকে বড় অভিভাবকের স্থান হয় ওই প্রতিষ্ঠানের শিক্ষকের।

১১:১১ পিএম, ১০ অক্টোবর ২০১৯ বৃহস্পতিবার

সময় এখন সজাগ হবার

সময় এখন সজাগ হবার

বর্তমান সমাজে  আসুরিক শক্তির আস্ফালন ভবিষ্যতের প্রতি এক অশনি সংকেত দেয়। কোন্ সভ্যতার পথে চলছি আমরা! কি ভবিষ্যত নির্মাণ করতে চলছি ?  সভ্যতা আজ মৃত্যুকূপে।  আজ সারা পৃথিবীব্যাপী উগ্রবাদ চর্চিত হচ্ছে। দেশ, কাল, পাত্র ও অবস্থান ভেদে  এর রুপ ভিন্ন। তবে পরিনতি সবক্ষেত্রে একই।  একটি  সময় মানুষ সম্মানিত হত এবং বিবেচিত হতো তার জ্ঞান, বিচক্ষণতা ও প্রাজ্ঞতার কারণে। কিন্তু বর্তমান পুঁজিবাদী ভোগ সর্বস্ব সমাজ ব্যবস্থায় মানুষের সামাজিক অবস্থান বিবেচিত  হয় তার অর্থনৈতিক অবস্থার মানদন্ডে।

০১:২৫ পিএম, ১০ অক্টোবর ২০১৯ বৃহস্পতিবার

শুধু মেধা নয়, দরদি মানুষ চাই

শুধু মেধা নয়, দরদি মানুষ চাই

অচিন্তনীয় সব অপমৃত্যুর ঘটনা ঘটে সকল দেশের সেরা আমার প্রিয় জন্মভুমিতে। কখনো মাথায় বাড়ি দেয় মোটা বাঁশ বা কাঠ দিয়ে, ধড়ফড় করে নিমিষে মরে যায় তাজা মানুষ। কখনো এরশাদ সিকদার বুকের উপর লাফালাফি করে হাড়গোড় চূর্ণবিচূর্ণ করে হৃদ্যন্ত্র কলিজা সব ফাটিয়ে জ্যান্ত মানুষকে নিমিষে চ্যাপ্টা লাশে পরিনত করে। কখনো হরেক কায়দায় হত্যা করে সাত জনের লাশ ডুবিয়ে রাখে শীতলক্ষার জলে। কখনো গুলি করে, কখনো গলা কেটে, কখনো এফোঁড় ওফোঁড় করে, কখনো পায়ুপথে বাতাস পাম্প করে সব কিছু ফাটিয়ে, কখনো পুড়িয়ে, কখনো ছেলেধরা সন্দেহে গণপিটুনি দিয়ে (বাড্ডায় রেনুর মতো) হত্যা করে। কখনো আবরারের মতো কাউকে পিটিয়ে পিটিয়ে থেতলিয়ে থেতলিয়ে তথাকথিত মেধাবীদের পৈশাচিক উল্লাসে হত্যা করে। 

০১:১৭ পিএম, ৯ অক্টোবর ২০১৯ বুধবার

আবরার হত্যাকান্ডে আমরাও দায়ী

আবরার হত্যাকান্ডে আমরাও দায়ী

বুয়েটের ছাত্র আবরার হত্যাকান্ডের কারণে সকাল থেকেই মানসিক অস্থিরতায় ভুগছি। ফেসবুকে এই নির্মম হত্যাকাণ্ড নিয়ে একটা স্ট্যাটাস লিখার প্রয়োজন অনুভব করছিলাম একটু ভিন্ন দৃষ্টিকোণ থেকে। 
আমি কোনোদিন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ছাত্র রাজনীতিকে সহজভাবে গ্রহণ করতে পারিনি। এই ছাত্র রাজনীতিকে কেন্দ্রীয় সরকারের পোষণ ও মদদদানকে শিক্ষার জন্য এক বড় প্রতিবন্ধকতা বলেই আমি আজীবন বিশ্বাস করে এসেছি

১১:৩৬ পিএম, ৭ অক্টোবর ২০১৯ সোমবার

ভাইস চ্যান্সেলরের জীবন কাহিনি

ভাইস চ্যান্সেলরের জীবন কাহিনি

ভাইস চ্যান্সেলরদের একেবারে গোড়ার বিষয়টিই বুঝতে পারি না — কেন একজন শিক্ষক ভাইস চ্যান্সেলর হতে চান? একজন শিক্ষকের জীবন কত আনন্দের, আমি যখন আমার শিক্ষকতা জীবনের পঁচিশ বছরের কথা চিন্তা করি, তখন সেখানে কত মধুর স্মৃতি। সেই তুলনায় একজন ভাইস চ্যান্সেলরের জীবনে দাফতরিক কাজ ছাড়া আর কী আছে? স্যুট-টাই পরে একটির পর আরেকটি মিটিং, একটা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির ভাষণ দেওয়ার পর আরেকটা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির ভাষণ, এই জীবনের জন্য কেন একজন লালায়িত হয়?

১১:৪৭ এএম, ৬ অক্টোবর ২০১৯ রোববার

আগাছা নির্মূলের এখনই সময়

আগাছা নির্মূলের এখনই সময়

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশ যখন অগ্রগতির পথে, মধ্যম আয়ের মর্যাদার লক্ষ্যে এগিয়ে চলেছে, বিশ্বে যখন প্রশংসিত তাঁর নেতৃত্বের মহিমা, তখনই একদল রাজনৈতিক পরগাছার কর্মকা- সরকারের অর্জনকে করছে প্রশ্নবিদ্ধ। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আগাছা উপড়ে ফেলে সামনের দিকে এগিয়ে যেতে বলেছেন। শুধু বলেই থেমে থাকেননি, কার্যকর ব্যবস্থাও গ্রহণ করেছেন। প্রমাণ আজ চোখের সামনে। তিনি প্রমাণ করেছেন মানুষের অধিকার, উন্নয়ন, অগ্রগতির পথে বাধা হয়ে দাঁড়ায় এমন দুর্বৃত্তদের ঠাঁই হবে না, রেহাই পাবে না কেউ। এমনকি তারা নিজের দলের হলেও। রাজনৈতিক দুর্বৃত্তদের জন্য তাঁর বার্তা পরিষ্কারÑ জিরো টলারেন্স।

০১:৪১ পিএম, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৯ মঙ্গলবার

ডিজিটাল বাংলাদেশের দ্বিতীয় পর্যায়

ডিজিটাল বাংলাদেশের দ্বিতীয় পর্যায়

পৃথিবীতে যেসব বিচিত্র বিষয় নিয়ে ব্যবসা হয়, আমার ধারণা সেগুলোর একটি হচ্ছে তথ্য-উপাত্তের ব্যবসা, ইংরেজিতে আজকাল খুব সহজে যাকে আমরা বলি ‘ডাটা’। এটি যদি খুব ছোটখাটো ব্যবসা হতো, তাহলে তা নিয়ে কেউ মাথা ঘামাতো না। কিন্তু এটি মোটেও ছোটখাটো ব্যবসা নয়। এটি পৃথিবীর সবচেয়ে বড় ব্যবসাগুলোর একটি, শুনেও ঠিক বিশ্বাস হতে চায় না তথ্য-উপাত্তের ব্যবসা নাকি পৃথিবীর তেল গ্যাসের মতো বড় ব্যবসা!

১১:৪৩ পিএম, ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৯ শুক্রবার

প্রফিট এন্ড লস! প্রোডাক্ট ভার্সেস আউটকাম!

প্রফিট এন্ড লস! প্রোডাক্ট ভার্সেস আউটকাম!

বেশিরভাগ মেয়ের ভালোবাসার মানুষকে বিয়ে করা হয়ে ওঠেনা অনেকগুলো কারণে। যাই হোক, তারপর তারা অন্যত্র বিয়ের জন্য রাজি হয়। তখন তাদের বিবেচ্য বিষয় - যে ছেলেকে আমি বিয়ে করছি তার কি কি আছে? ব্যাংক ব্যালেন্স কেমন, কত বড় চাকরিজীবী, লিভিং অব স্ট্যান্ডার্ড ( living of standard) কত উচ্চ, অন্য বান্ধবীদের থেকে সে কিভাবে ইউনিক, কোথায় হলিডে করতে পারবে, কোথায় শপিং করতে পারবে . . . এইসব।

০৫:৫৫ পিএম, ৬ সেপ্টেম্বর ২০১৯ শুক্রবার

দেশ নিয়ে চাওয়া পাওয়া

দেশ নিয়ে চাওয়া পাওয়া

খবরের কাগজ দেখলে যে কেউ এক ধরনের হতাশা অনুভব করবেন। কিছু দিন আগেও সেখানে ছিল ধর্ষণ, গণধর্ষণ আর শিশু ধর্ষণের খবর। মনে হচ্ছিল মাদ্রাসার শিক্ষকেরা বুঝি একজনের সঙ্গে আরেকজন এ ব্যাপারে প্রতিযোগিতায় নেমেছেন। এখন হচ্ছে ডেঙ্গু খবর। 

১১:১৮ এএম, ২৩ আগস্ট ২০১৯ শুক্রবার

কুদ্দুস মিয়ার আত্মপ্রতিকৃতি

কুদ্দুস মিয়ার আত্মপ্রতিকৃতি

কুদ্দুস মিয়া যখন পেন্সিল নিয়ে মোটা আর্ট পেপারের উপর ছবির স্কেচ আঁকতে শুরু করে তখন তার ছোট ছোট চোখগুলো আরো ছোট হয়ে পড়ে। সন্ধ্যার পর আলো আঁধারীতে চোখ যেখানে বিস্ফারিত হওয়ার কথা সেখানে তা আরো কুঞ্চিত হয়ে যায়। ব্যাপারটা বেশ রহস্যময়।

০২:২০ পিএম, ২২ আগস্ট ২০১৯ বৃহস্পতিবার

পঁচাত্তরের পট পরিবর্তন ও সাংবাদিকের ইন্ধন

পঁচাত্তরের পট পরিবর্তন ও সাংবাদিকের ইন্ধন

১৯৭৫ সালে বাংলাদেশ দেখেছে সপরিবারে জাতির জনক এবং জেলখানায় জাতীয় চার নেতা হত্যা। দেখেছে ক্ষমতার পালাবদল, সেনাবাহিনীতে বিশৃঙ্খলা, হত্যাযজ্ঞ, রক্তপাত, মুক্তিযুদ্ধের চেতনার বিনাশী প্রক্রিয়া। কলংকময় নানা ঘটনায় প্লাবিত পঁচাত্তর বাঙালি জাতির জীবনেও এনে দিয়েছে নানা ঘাত-প্রতিঘাত।

০৭:০৭ পিএম, ১৭ আগস্ট ২০১৯ শনিবার

দুর্নীতিকে ভালোবেসে ফেলেছে মানুষ!

দুর্নীতিকে ভালোবেসে ফেলেছে মানুষ!

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে মাঝে মাঝে কিছু পোষ্ট দেখা যায় । সে সব পোষ্টের সারসংক্ষেপ এ রকম - মন্ত্রী থেকে শুরু করে থানার ওসি পর্যন্ত প্রায় দুই হাজার লোক দুর্নীতি না করলে দেশে দুর্নীতি থাকবে না । 
দুর্নীতি একটি বহুমাত্রিক সামাজিক এবং বৈশ্বিক ব্যাধি । এটাকে খুব সংক্ষেপে সংজ্ঞায়িত করা কঠিন ।

০৭:০৯ পিএম, ১৬ আগস্ট ২০১৯ শুক্রবার