ঢাকা, ১৪ জুলাই রোববার, ২০২৪ || ২৯ আষাঢ় ১৪৩১
good-food
৩২১

অজান্তেই প্রতিদিনের যেসব অভ্যাস ডায়াবেটিসের ঝুঁকি বাড়াচ্ছে

লাইফ টিভি 24

প্রকাশিত: ১২:৩৭ ১১ সেপ্টেম্বর ২০২৩  

অনেকে মনে করেন মিষ্টির প্রতি অগাধ ভালোবাসাই ডায়াবেটিসের একমাত্র কারণ। এ ধারণা কিন্তু ঠিক নয়। ডায়াবেটিস ধরা পড়লে মিষ্টি খেতে বারণ করেন চিকিৎসকেরা। কারণ অত্যধিক মিষ্টি খাওয়ার প্রবণতা রক্তে শর্করার পরিমাণ বাড়িয়ে দেয়। তবে প্রতিদিনের কিছু অভ্যাসেও ডায়াবেটিস বাসা বাঁধে শরীরে।


এমন কিছু অভ্যাসের কথা জানিয়েছে ভারতীয় সংবাদমাধ্যম। নিজের বা বাড়িতে কারও যেসব অভ্যাস থাকলে তা কীভাবে বদল আনবেন?


১. অনেকেই অফিস যাওয়ার তাড়ায় সকালের খাবার না খেয়েই বাড়ি থেকে বেরিয়ে যান। দীর্ঘক্ষণ খালি পেটে থাকার কারণে কিন্তু শরীরে ইনসুলিন হরমোনের ক্ষরণ বেড়ে যাওয়ার ঝুঁকি থাকে। তাই সকালের খাবার খেতে হবে পেট ভরে।

 

২. ব্যস্ত জীবনে ঘুমের সঙ্গে আপস করেন কেউ কেউ। অপর্যাপ্ত ঘুম নানা রোগবালাই ডেকে আনে। শরীর সুস্থ রাখতে যে পরিমাণ ঘুমের প্রয়োজন, তার চেয়ে কম হলে ডায়াবেটিস হওয়ার ঝুঁকি থেকে যায়। ঘুম যাতে পর্যাপ্ত হয়, সে দিকে অবশ্যই খেয়াল রাখা জরুরি।

 

৩. দীর্ঘক্ষণ এক জায়গায় বসে কাজ করলেও ডায়াবেটিসের ঝুঁকি বাড়ে। শরীর যত সচল রাখবেন, ততই ডায়াবেটিস দূরে থাকবে। এক জায়গায় বসে বসে কাজ রক্তে শর্করার মাত্রা বাড়িয়ে দিতে পারে। তাই যত পারবেন শরীর সচল রাখার চেষ্টা করুন। শরীরচর্চা অভ্যাস করুন।

 

৪. বিভিন্ন গবেষণায় দেখা গেছে ধূমপানের সঙ্গেও ডায়াবেটিসের যোগ রয়েছে। তাই ডায়াবেটিসের ঝুঁকি কমাতে ধূমপানে রাশ টানুন।

 

৫. মানসিক চাপের কারণেও ডায়াবেটিসে আক্রান্ত হন কেউ কেউ। কর্মক্ষেত্রে চাপ, বাড়িতে সমস্যা— চিন্তার জেরে বেড়ে যায় রক্তের শর্করার মাত্রা। মানসিক চাপ কমাতে নিয়মতি যোগাসন করুন। মাঝেমধ্যে সময় বের করে বন্ধুবান্ধবের সঙ্গে আড্ডা দিন। মন ভালো রাখার চেষ্টা করুন।