ঢাকা, ২৮ সেপ্টেম্বর বুধবার, ২০২২ || ১৩ আশ্বিন ১৪২৯
good-food
৩২৯

বাংলাদেশ থেকে আরও ৫ বছর নতুন কর্মী নেবে মালয়েশিয়া

লাইফ টিভি 24

প্রকাশিত: ০১:৫৪ ২০ ডিসেম্বর ২০২১  

নতুন করে শ্রমিক নিতে বাংলাদেশের সঙ্গে সমঝোতা স্মারক (এমওইউ) সই করেছে মালয়েশিয়া।  রোববার (১৯ ডিসেম্বর) দেশটির মানবসম্পদ মন্ত্রী দাতুক সেরি এম সারাভানান এবং সরকারের প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রী ইমরান আহমদ এতে সই করেন।

 

এর আগের চুক্তি চলতি বছরের ফেব্রুয়ারিতে শেষ হয়।এদিন শ্রমবাজার নিয়ে নতুন করে সমঝোতা স্মারক সই করে বাংলাদেশ-মালয়েশিয়া। আগামী পাঁচ বছর তা কার্যকর থাকবে।

 

মালয়েশিয়ার মানবসম্পদ মন্ত্রী সারাভানান এক বিবৃতিতে বলেন, সমঝোতা স্মারকে উভয় দেশের দায়িত্বের রূপরেখা দেয়া হয়েছে। এর মধ্যে মালয়েশিয়ার নিয়োগকর্তা এবং বাংলাদেশের শ্রমিকদের কাজ উল্লেখ আছে। এছাড়া দুই দেশের বেসরকারি কর্মসংস্থান সংস্থার দায়িত্বও অন্তর্ভুক্ত রয়েছে।

 

সারাভানানের মতে, সমঝোতা স্মারকটির বাস্তবায়ন একটি জয়েন্ট ওয়ার্কিং গ্রুপ (জেডব্লিউজি) দিয়ে নিয়ন্ত্রিত হবে। উভয় দেশের সদস্যদের সমন্বয়ে এটি গঠিত হবে।

 

তিনি জানান, চলতি বছরের নভেম্বর পর্যন্ত মালয়েশিয়ায় মোট ৩ লাখ ২৬,৬৬৯ বাংলাদেশি কর্মরত আছেন। এর মধ্যে উৎপাদন খাতে ১ লাখ ১১,৬৯৪ জন এবং নির্মাণ খাতে ১ লাখ ৩৬,৮৯৭ জন রয়েছেন।

 

সারাভানান বলেন, ‘মালয়েশিয়ায় বিদেশি কর্মী নিয়োগে শর্ত জুড়ে দিয়েছে আমাদের মানবসম্পদ মন্ত্রনালয়। নিয়োগকর্তারা ১৯৬৬ সালের ন্যূনতম স্ট্যান্ডার্ড অব হাউজিং অ্যান্ড অ্যামেনিটিস আইন অনুযায়ী, নির্ধারিত আবাসন বা বাসস্থান সুবিধা দেবে শ্রমিকদের।’

 

মালয়েশিয়ার মন্ত্রী বলেন, এ প্রক্রিয়ায় বাংলাদেশি কর্মীদের নিজ দেশ থেকে কোভিড-১৯ পরীক্ষা করতে হবে। এদেশে আসার পর তাদের কোয়ারেন্টাইনে রাখা হবে। পরে আবার করোনা পরীক্ষা করা হবে। কোয়ারেন্টাইন শেষে কর্মীদের নিজ নিজ কর্মস্থলে নেয়া হবে।

 

তিনি জানান, এছাড়া মানবসম্পদ মন্ত্রণালয় নির্ধারিত এসওপির ভিত্তিতে বাংলাদেশিসহ বিদেশি কর্মীদের প্রবেশ কঠোরভাবে পর্যবেক্ষণ করা হবে। এতে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় এবং জাতীয় নিরাপত্তা পরিষদ (এমকেএন) সহযোগিতা করবে।

প্রবাস বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর