ঢাকা, ১৮ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ || ৫ ফাল্গুন ১৪২৫

পরীক্ষামূলক

LifeTv24 :: লাইফ টিভি 24
১৫

‘শুরুতে চিহ্নিত হলে ক্যান্সার নিরাময় সম্ভব’

প্রকাশিত: ৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৯  


বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ডা. কনক কান্তি বড়ুয়া বলেছেন, শুরুতে ক্যান্সার নির্ণয় বা চিহ্নিত করা গেলে অধিকাংশ ক্ষেত্রেই তা নিরাময় সম্ভব হয়।

বিশ্ব ক্যান্সার দিবস সোমবার সকালে শিশু হেমাটোলজি এন্ড অনকোলজি বিভাগ, ওরাল এ্যান্ড ম্যাক্সিলোফিশিয়াল সার্জারি বিভাগের উদ্যোগে বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বের হওয়া সচেতনতামূলক ্যালি পূর্বক সমাবেশে তিনি কথা বলেন।

এবারের প্রতিপাদ্যআমি আছি এবং আমি থাকবঅত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। তিনি বলেন, ক্যান্সার শরীরের সর্বত্রই হতে পারে। তবে রোগ ছোঁয়াচে নয়। রোগের বিষয়ে গণমানুষের মধ্যে আরো সচেতনতা সৃষ্টি করা জরুরি। ক্যান্সার রোগীদের পাশে আমরা সবাই আছি, থাকব। ক্যান্সার প্রতিরোধের জন্য আমরা সর্বদাই সচেষ্ট থাকব।

এসময় র‌্যালিটি ক্যাম্পাসের বিভিন্ন অংশ প্রদক্ষিণ করে। র‌্যালিতে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য (গবেষণা উন্নয়ন) অধ্যাপক ডা. মো. শহীদুল্লাহ সিকদার, শিশু অনুষদের ডীন অধ্যাপক ডা. চৌধুরী ইয়াকুব জামাল, রেজিস্ট্রার অধ্যাপক ডা. এবিএম আব্দুল হান্নান, পরিচালক (হাসপাতাল) ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মো. আব্দুল্লাহ আল হারুন, গাইনোকোলজিক্যাল অনকোলজি বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ডা. সাবেরা খাতুন, অনকোলজি বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ডা. সারওয়ার আলম, শিশু হেমাটোলজি এন্ড অনকোলজি বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ডা. মো. আনোয়ারুল করিম, ওরাল এন্ড ম্যাক্সিলোফিশিয়াল সার্জারি বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ডা. কাজী বিল্লুর রহমান, অনকোলজি বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ডা. জিল্লুর রহমান ভূঁইয়া, সহযোগী অধ্যাপক ডা. মো. নাজির উদ্দিন মোল্লাহ, হেমাটোলজি বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ডা. মো. সালাহউদ্দীন শাহ অংশ নেন।


এই বিভাগের আরো খবর