ঢাকা, ০৯ এপ্রিল বৃহস্পতিবার, ২০২০ || ২৬ চৈত্র ১৪২৬
good-food
৭০

কভিড-১৯ সুরক্ষা দেয় মাস্ক ?

লাইফ টিভি 24

প্রকাশিত: ১২:৫২ ১৩ মার্চ ২০২০  

নাদিম মাহমুদ  :  বাংলাদেশসহ সারা বিশ্বে মানুষ কভিড-১৯ হাত থেকে রক্ষা পেতে অনেকটা উন্মাদের মত বদনবন্ধনী বা মাস্ক সংগ্রহ করছে। সবাই মনে করছে, এই মুখোশ ব্যবহার করলে বাতাসে ভেসে থাকা করোনাভাইরাস নাক-মুখের মধ্যে দিয়ে শরীরে প্রবেশ করতে পারবে না।

 

বিষয়টি কি আসলে তাই?

 

সাধারণত সার্জিক্যাল মাস্কগুলোর  Bacterial Filtration Efficiency  বা বিএফই লেবেল হচ্ছে ৩ মাইক্রোমিটার পর্যন্ত এবং পার্টিকেল ফিল্ট্রেশন দক্ষতা ০.৩ মাইক্রোমিটার পর্যন্ত।

 

সবচেয়ে ভাল  N95 (তেল প্রতিরোধী নয়),  R99 (তেল প্রতিরোধী) এবং  P100 টাইপের মাস্ক মূলত ০.৩ মাইক্রোমিটার ব্যাসের বস্তুকে পরিস্রাবণ বা ফিলট্রেশন করতে পারে।

 

সবচেয়ে মজার বিষয় হলো, ২.৯ কিলোবেইস পেয়ার নিউক্লিটাইড বিশিষ্ট কভিড-১৯ রোগ সৃষ্টিকারী SARS-CoV-2 ভাইরাসটির ব্যাস ০.০৬ থেকে ০.১৪ মাইক্রোমিটারের যা প্রচলিত বাজারের মাস্কের ছিদ্র বা পোরের চেয়ে পাঁচগুণ ছোট।

 

ঠিক কোন যুক্তিতে এই ভাইরাস সার্জিক্যাল মাস্ক আটকাতে পারে? কোন অবস্থাতে করোনাভাইরাসটিকে আটকানোর সক্ষমতা বাজারে থাকা সার্জিক্যাল মাস্কগুলোতে নেই।

 

দ্বিতীয়ত, করোনাভাইরাসে বাতাসে ভেসে বেড়ানোর কোন তথ্য এখন পর্যন্ত নেই।

 

মাস্ক মূলত তারাই ব্যবহার করবেন যারা সর্দি-কাশিতে আক্রান্ত। এটা আপনার হাঁচি কমাতে সহায়তা করবে, সেই সাথে হাঁচির মধ্যে দিয়ে বের হওয়া জীবাণুটি অন্য কারও শরীরে লাগবে না। তবে যারা সুস্থ রয়েছেন, তাদের পুরোপুরিই মাস্ক ব্যবহারের কোন যৌক্তিকতা নেই।

 

বরং যারা আক্রান্ত হচ্ছেন, তাদের কোয়ারেন্টিনে বা একঘরে হয়ে চলেন। নিজেদের পরিস্কার-পরিচ্ছন্ন রাখেন।