ঢাকা, ২১ সেপ্টেম্বর মঙ্গলবার, ২০২১ || ৬ আশ্বিন ১৪২৮
good-food
৭৯

মৃত্যুঞ্জয়ী দ্যুতিময় নক্ষত্র

লাইফ টিভি 24

প্রকাশিত: ০৯:৪৮ ১৫ আগস্ট ২০২১  

বাঙালি জাতির শোকের দিন আজ। জাতির পিতাকে হারানোর হাহাকারের দিন। ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট কালরাতে ঘাতকদের বুলেটে প্রাণ হারান বাংলাদেশের স্বাধীনতার স্থপতি, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান। বাঙালি জাতির হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ সন্তানের এই হত্যাকাণ্ডের শোক এক দিনের নয়, প্রতিদিনের।

গোলামির শৃঙ্খল ভেঙে যিনি স্বাধীনতা এনে দিয়ে বাঙালির মুখে হাসি ফুটিয়েছেন, তাকে কী করে হৃদয় থেকে মুছে ফেলা যায়? প্রতিদিনের এই শোক প্রতিনিয়ত জোগাচ্ছে এগিয়ে যাওয়ার শক্তি। দিনে দিনে উজ্জ্বল হচ্ছে তার উপস্থিতি। মৃত্যুঞ্জয়ী দ্যুতিময় নক্ষত্র তুমি, বঙ্গবন্ধু।


 
শতবর্ষ আগে তিনি জন্মেছিলেন পলিমাটির বাংলায়। মধুমতির কোল ঘেঁষে টুঙ্গিপাড়ায়। বাংলার মুক্তির বারতা লেখা ছিল তার তর্জনীতে। অর্ধশত বছর আগে, জনসমুদ্রে দাঁড়িয়ে তিনি বলেছিলেন, ‘এবারের সংগ্রাম আমাদের মুক্তির সংগ্রাম। এবারের সংগ্রাম আমাদের স্বাধীনতার সংগ্রাম।’ স্বাধীনতার সেই অমর কবিতাখানি হয়ে উঠল একটি জাতির মুক্তির মন্ত্র।


 
বাঙালির হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালির নাম মুছে দিতে চেয়েছিল ঘাতকেরা। ইতিহাসের নৃশংসতম অধ্যায় রচনা করেছিল পঁচাত্তরের ১৫ আগস্ট। রক্তের গঙ্গা বয়েছিল ঝিলের ধারে ধানমন্ডির ৩২ নম্বর বাড়িতে।

আজ তার ৪৬তম শাহাদাতবার্ষিকী। বঙ্গবন্ধুর শততম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে বছরব্যাপী ‘মুজিববর্ষ’ পালিত হচ্ছে। কিন্তু করোনা পরিস্থিতির কারণে শোকদিবসের কর্মসূচি কাটছাঁট করা হয়েছে। এই দিবসকে কেন্দ্র করে  সীমিত পরিসরে পালিত হবে কর্মসূচি।

 
জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৬তম শাহাদতবার্ষিকীতে আজ জাতি-ধর্ম-বর্ণ নির্বিশেষে বাঙালি জাতি গভীর শ্রদ্ধার সঙ্গে স্মরণ করবে সেই কালরাতের শহীদদের। দিনটি উপলক্ষে পৃথক পৃথক বাণী দিয়েছেন রাষ্ট্রপতি মো. আব্দুল হামিদ ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।