ঢাকা, ২১ সেপ্টেম্বর মঙ্গলবার, ২০২১ || ৬ আশ্বিন ১৪২৮
good-food
৯০

আকাশে হার্ট অ্যাটাক করা পাইলট নওশাদ লাইফ সাপোর্টে

লাইফ টিভি 24

প্রকাশিত: ১৬:০৫ ২৯ আগস্ট ২০২১  

মাসকট থেকে ঢাকায় ফেরার পথে আকাশে ‘হার্ট অ্যাটাকের’ শিকার বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের পাইলট নওশাদ আতাউল কাইয়ুমের অবস্থা সঙ্কটাপন্ন। তিনি এখন নাগপুরের কিংসওয়ে হাসপাতালে লাইফ সাপোর্টে রয়েছেন।

 

রোববার বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের জনসংযোগ শাখার উপ মহা ব্যবস্থাপক তাহেরা খন্দকার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন,’ আমরা এখন পর্যন্ত এরকম খবর পেয়েছি। বিমানের দিল্লি অফিসের একজন ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা গত শুক্রবারই নাগপুর পৌঁছেছেন। উনি সার্বক্ষণিক পাইলট নওশাদের খোঁজখবর রাখছেন।’

 

বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স পাইলট অ্যাসোসিয়েশন (বাপা) সভাপতি মাহবুবুর রহমান বলেন, ক্যাপ্টেন নওশাদকে নাগপুর কিংসওয়ে হাসপাতালে ভেন্টিলেশনে রাখা হয়েছে। সেখানে তার দুই বোন আছেন।

 

বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও প্রধান নির্বাহী আবু সালেহ মোস্তফা কামাল বলেন, ‘সেখানে নওশাদের চিকিৎসার জন্য একটা বোর্ড গঠন করা হয়েছে। তারা তার শারীরিক অবস্থা সম্পর্কে জানালে আমরা নিয়মিত হালনাগাদ তথ্য দিতে পারব।’

 

১২৪ জন যাত্রী নিয়ে জমার দিন সকালে মাসকট থেকে ঢাকার উদ্দেশ্যে রওনা হয়েছিলেন বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের বিজি-২২ ফ্লাইটের পাইলট নওশাদ। মাঝ আকাশে তিনি অসুস্থ হয়ে পড়লে কো-পাইলট কলকাতার এয়ার কন্ট্রোলের সঙ্গে যোগাযোগ করেন। পরে  নাগপুরের ড. বাবাসাহেব আম্বেদকর আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে জরুরি অবতরণ করে বোয়িং ৭৩৭-৮০০ উড়োজাহাজটি।

 

একটি অ্যাম্বুলেন্স রানওয়েতে অপেক্ষাতেই ছিল। বিমান নামার পরপরই পাইলট নওশাদকে নিয়ে সেটি হাসপাতালে যায়। বাপা সভাপতি মাহবুবুর জানান, সেখানে নেওয়ার পরপরই তার এনজিওগ্রাম করা হয়।

 

বর্তমানে কিংসওয়ে হাসপাতালের মেডিকেল সার্ভিসেসের পরিচালক সুভরজিৎ দাশগুপ্ত, ক্রিটিক্যাল কেয়ার ফিজিশিয়ান রঞ্জন বারোকার এবং বীরেন্দ্র বেলেকারের অধীনে চিকিৎসাধীন ক্যাপ্টেন নওশাদ। ঢাকা থেকে একদল ক্রু পাঠিয়ে বিমানের বিজি-২২ ফ্লাইট এবং যাত্রীদের সেদিন রাতেই ঢাকায় নিয়ে আসা হয়।