ঢাকা, ০১ মার্চ সোমবার, ২০২১ || ১৬ ফাল্গুন ১৪২৭
good-food
১৫৯

আঞ্জনির ব্যথায় চোখ খুলতে পারছেন না, কী করবেন?

লাইফ টিভি 24

প্রকাশিত: ২১:৪১ ১৩ জানুয়ারি ২০২১  

হঠাৎ করে সকালে ঘুম থেকে উঠে দেখছেন চোখ ফুলে লাল হয়ে গেছে। এর পাতায় ফুঁসকুড়ির মতো বেরিয়েছে। প্রচণ্ড ব্যথায় তা খুলতেই পারছেন না। সেই সঙ্গে পানি পড়া, অনেক সময় পুঁজও হয়ে যায়। এটাকে আমরা আঞ্জনি বলি। প্রত্যেকেই কোনও না কোনও সময় এতে ভুগেছেন! 


যে কারণে আঞ্জনি হয়
আমাদের অনেকের ধারণা চোখে নোংরা জমে বা ইনফেকশন হয়ে আঞ্জনি দেখা দেয়। কিন্তু চিকিৎসকেরা বলছেন অন্য কথা। এতে অনেক ক্ষুদ্র তেল গ্রন্থি আছে। বিশেষ করে পাতার ওপর। মৃত ত্বক, ময়লা বা তেল জমে ওই ছোট ছোট তেল গ্রন্থিগুলোকে বন্ধ করে দেয়। ফলে সেটার ভেতরে ব্যাকটেরিয়া জন্ম নেয়। আর আঞ্জনি হয়। এটা চোখের ভেতরে এবং বাইরে হতে পারে। 


লক্ষণ 
যে লক্ষণগুলো দেখে বুঝবেন চোখে আঞ্জনি হয়েছে – 
চোখ ফুলে যাওয়া,  যন্ত্রণা থেকে অনবরত পানি পড়া, এর পালকের চারপাশে আলাদা ত্বকের মতো তৈরি হয়, পুঁজ বের হওয়া ব্যথা, চুলকানি, সূর্যের আলোয় চোখ খুলতে সমস্যা, পলক ফেলতে সমস্যা ইত্যাদি।


ওপরের কোনও একটি সমস্যা যদি চোখে দেখা দেয় তাহলে সতর্ক হয়ে যান। কিন্তু কখনই এর উপর চাপ দেবেন না বা স্পর্শ করবেন না। চিকিৎসকদের মতে, আঞ্জনি হলে সবসময় ওষুধ খাওয়া বা চোখে ড্রপ দেওয়ার দরকার পড়ে না। ঘরোয়া কিছু উপায় অবলম্বন করলে কয়েকদিনেই সেরে যায় এই অসুখ। 


গরম সেঁক 
যে চোখে আঞ্জনি হয়েছে সেটায় গরম সেঁক দিলে দারুণ কাজ হবে। গরমে পুঁজ বেরিয়ে তা ভালো হয়ে যাবে খুব তাড়াতাড়ি। একটি পরিষ্কার কাপড় নিয়ে সেটাকে গরম পানিতে ডুবিয়ে নিন। কাপড় থেকে পানি নিঙড়ে নিয়ে চোখের ওপর ৫-১০ মিনিট রাখুন। কোনোরকম চাপ দেবেন না। প্রতিদিন ৩-৪ বার এটা করতে হবে। 


সাবান পানিতে ধোবেন 
চোখে আঞ্জনি হলে কখনই বেশি ক্ষারযুক্ত সাবান ব্যবহার করবেন না। এতে ক্ষতি হবে। চিকিৎসকেরা বলেন, চোখের আশপাশের জায়গা পাতলা হয়। সেজন্য কোনও প্রোডাক্ট ব্যবহারের ক্ষেত্রে সতর্ক থাকতে হবে সবসময়। টিয়ার ফ্রি বেবি শ্যাম্পু ব্যবহার করতে পারেন। হালকা গরম পানিতে শ্যাম্পু মিশিয়ে তুলোয় করে পাতা পরিষ্কার করুন। আঞ্জনি ভালো না হওয়া পর্যন্ত এই পদ্ধতিতে চোখ পরিষ্কার করুন প্রতিদিন। 


গরম টি ব্যাগ 
গরম সেঁকের বদলে গরম টি ব্যাগ ব্যবহার করতে পারেন। ব্ল্যাক টি সবচেয়ে ভালো কাজ করে। কারণ এতে থাকে অ্যান্টি-ব্যাকটেরিয়াল উপাদান। একটা বড় কাপে গরম পানি নিয়ে টি ব্যাগটা দিয়ে দিন। এক মিনিটের মতো রেখে তা বের করুন। ঠান্ডা হয়ে গেলে চোখের ওপর রাখুন সেটা। ৫-১০ মিনিটের মতো রাখলেই হবে। 


অ্যান্টি বায়োটিক মলম লাগান 
যদি আঞ্জনি সামান্য হয় তাহলে অ্যান্টি বায়োটিক মলমে সেরে যেতে পারে। তবে চিকিৎসকের প্রেসক্রাইব করা মলমই লাগাবেন। 

 

মেকআপ থেকে দূরে থাকুন 
আঞ্জনি থাকলে কখনই মেকআপ করবেন না। এটি হওয়া অবস্থায় তা করলে ব্রাশ বা অন্যান্য জিনিসে ব্যাকটেরিয়া চলে যেতে পারে। সেটা যে ব্যবহার করবে তার চোখেও আঞ্জনি হতে পারে। লেন্স ব্যবহার করাও এড়িয়ে চলুন।

স্বাস্থ্য বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর