ঢাকা, ১৮ সেপ্টেম্বর বুধবার, ২০১৯ || ৩ আশ্বিন ১৪২৬
LifeTv24 :: লাইফ টিভি 24
৫৮

নেট-ফোনসহ আধুনিক সুবিধা

‘গাঙচিল’ উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী

প্রকাশিত: ১৪:০৭ ২২ আগস্ট ২০১৯  

ছবি : ইয়াসিন কবীর জয়

ছবি : ইয়াসিন কবীর জয়


বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইনসের বহরে সদ্যযুক্ত উড়োজাহাজ ‘গাঙচিল’ প্রথমবারের মতো যাত্রী নিয়ে আকাশে উড়াল দিচ্ছে।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বৃহস্পতিবার হজরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের রানওয়েতে ফিতা কেটে উদ্বোধনের পর উড়োজাহাজ পরিদর্শন করেন। 

 বোয়িং ৭৮৭-৮ ড্রিমলাইনারটি বিকেলে (বিজি-০২৭) ঢাকা থেকে আবুধাবির উদ্দেশে যাত্রা শুরু করবে বলে বিমানের ভারপ্রাপ্ত ব্যবস্থাপনা পরিচালক ফারহাত হাসান জামিল জানিয়েছেন।
এটা বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইনসের বহরে যুক্ত তৃতীয় বোয়িং ৭৮৭-৮ ড্রিমলাইনার। 
গাঙচিল নামে এই উড়োজাহাজের ২৭১টি আসনের মধ্যে বিজনেস ক্লাসের ২৪টি, বাকিগুলো ইকোনমি ক্লাসের।

বিজনেস ক্লাসে আরামদায়ক ভ্রমণ ছাড়াও যাত্রীরা ইন্টারনেট ও ফোন কল সুবিধাসহ অন্য আধুনিক সুযোগ-সুবিধা পাবেন।

বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স ২০০৮ সালে মার্কিন উড়োজাহাজ নির্মাতা প্রতিষ্ঠান বোয়িংয়ের সঙ্গে ১০টি নতুন বিমান কেনার চুক্তি করে। এর মধ্যে চারটি ৭৭৭-৩০০ইআর, দুটি ৭৩৭-৮০০ এবং চারটি ড্রিমলাইনার ৭৮৭-৮ উড়োজাহাজ ছিল।

২৫ জুলাই সিয়াটল থেকে সরাসরি দেশে আসে গাঙচিল (তৃতীয় বোয়িং ৭৮৭-৮ ড্রিমলাইনার)। এর ফলে মোট ৯টি নিজস্ব উড়োজাহাজাজ বহরে পেল বিমান।

ফারহাত হাসান জামিল বলেন, ‘রাজহংস’ নামে চতুর্থ বোয়িং ৭৮৭ ড্রিমলাইনার ১২ সেপ্টেম্বর বাংলাদেশে আসবে।

সেটি এলে বাংলাদেশের মোট নিজস্ব উড়োজাহাজের সংখ্যা দাঁড়াবে ১০টিতে; উড়োজাহাজের সংখ্যা দাঁড়াবে ১৬-তে। বাকিগুলো বিভিন্ন মেয়াদে ভাড়া নেওয়া।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার পছন্দে বিমানের ১০টি বোয়িং উড়োজাহাজের নাম রাখা হয়েছে। এগুলো হলো - পালকি, অরুণ আলো, আকাশ প্রদীপ, রাঙা প্রভাত, মেঘদূত, ময়ূরপঙ্খী, আকাশবীণা, হংসবলাকা, গাঙচিল ও রাজহংস।