ঢাকা, ২২ মে বুধবার, ২০১৯ || ৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬
LifeTv24 :: লাইফ টিভি 24
৭০

বোনের বিয়ের কেনাকাটা করতে গিয়ে লাশ রোহান

প্রকাশিত: ১৯:৪২ ২১ ফেব্রুয়ারি ২০১৯  


ছোট বোনের বিয়ে। ক’দিন ধরেই ছুটে বেড়াতে হচ্ছিল রোহানকে। সর্বোচ্চ চেষ্টা ছিল সুষ্ঠু আয়োজনের। বুধবার রাতে দুই মোটর সাইকেলে চার বন্ধুসহ বের হন বিয়ের কেনাকাটা করতে।  কিন্তু বোনের বিয়ে আর দেখে যাওয়া হলো না তার। চকবাজার ট্র্যাজেডি থামিয়ে দিল নর্থ-সাউথ বিশ্ববিদ্যালয়ের বিবিএ দ্বিতীয় সেমিস্টারের শিক্ষার্থীর দৌড়ঝাঁপ।

রোহানের সঙ্গে লাশ হয়েছেন বন্ধু আরাফাতও। তিনি উইলস লিটল ফ্লাওয়ার স্কুলের ‘এ’ লেভেলের ছাত্র।। বাসিন্দা কাজী আলাউদ্দিন রোড সংলগ্ন আগা মসজিদ এলাকার।

গেল রাতে চকবাজারের চুড়িহাট্টা শাহী মসজিদের পাশের কয়েকটি ভবনে আগুন লাগে। সকালে ৭০টি মরদেহ উদ্ধার করে পাঠানো হয় ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের মর্গে। সেখানে ছুটে যান দুজনের স্বজনেরা। তবে লাশ শনাক্ত করতে পারছিলেন না।

রোহানের চাচাত ভাই মমিন খান বলেন, ভাইয়ের মরদেহ মর্গে আছে। কিন্তু কেউ তার লাশ শনাক্ত করতে পারছি না।

মর্গের সামনে ব্যবসায়ী মোহাম্মদ ওয়াজেদ জানান, রোহান ও আরাফাতের সঙ্গে ছিলেন আমার ভাগ্নে মাইনুল ইসলাম লাবিব, রমিজ ও সোহাগ। এই তিনজন ছিলেন একটি মোটর সাইকেলে। আর রোহান ও আরাফাত ছিলেন অপরটিতে।

তিনি বলেন, আরাফাতের মোটর সাইকেলটিতে তাৎক্ষণিক আগুন ধরে। আরাফাত ও রোহান দুজনই মারা গেছেন। মাথার সামান্য অংশ পুড়লেও বেঁচে গেছেন লাবিব।

বৃহস্পতিবার দুপুরে মর্গের সামনে ছিলেন রোহানের  বাবা মো. হাসান খান। তবে কথা বলার অবস্থায় ছিলেন না। সঙ্গে থাকা তার শ্বশুর ইউনুস খান জানান, মার্চে রোহানের ছোট বোনের বিয়ে। সেজন্য সে বন্ধুদের নিয়ে দৌড়ঝাঁপের মধ্যে ছিল। ও বন্ধুদের নিয়ে ওই এলাকায় গিয়েছিল কমিউনিটি সেন্টার, ডেকোরেশনের কথা বলতে। পাশাপাশি কেনাকাটা করতে। তখনই ওই ঘটনা ঘটে।


এই বিভাগের আরো খবর