ঢাকা, ০৩ জুন বুধবার, ২০২০ || ১৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭
good-food
৪৬

হালদা থেকে রেনু সংগ্রহ ১৪ বছরের সর্বোচ্চ

লাইফ টিভি 24

প্রকাশিত: ০৯:৪২ ২৩ মে ২০২০  

চট্টগ্রামে হালদা নদীতে ডিম ছেড়েছে কার্পজাতীয় মাছ। গতকাল এ নদী থেকে ২৫ হাজার ৫৩৬ কেজি মাছের ডিম সংগ্রহ হয়েছে। সংশ্লিষ্টরা বলছেন, ২০০৭ সালের পর থেকে হালদা নদীতে এ পরিমাণ ডিম সংগ্রহের রেকর্ড এটিই প্রথম। নভেল করোনাভাইরাস সংক্রমণের কারণে কারখানা বন্ধ থাকায় পরিবেশ দূষণ কমে যাওয়া ও পর্যাপ্ত বৃষ্টিপাতের কারণে এবার ডিম সংগ্রহ উল্লেখযোগ্য পরিমাণে বেড়েছে। তবে নভেল করোনাভাইরাস সংক্রমণের কারণে এবার ডিম থেকে উত্পন্ন রেণু পোনা বিপণনে সমস্যা হতে পারে।

হালদা নদী দেশে স্বাদু পানির কার্পজাতীয় মাছের প্রধান প্রজননক্ষেত্র। পার্বত্য চট্টগ্রাম থেকে উত্পন্ন এ নদী চট্টগ্রামের রাউজান ও হাটহাজারী উপজেলার প্রায় ৯৮ কিলোমিটার এলাকাজুড়ে প্রবাহিত হয়ে মিশেছে কর্ণফুলী নদীতে। সাধারণত চৈত্র থেকে আষাঢ়ের মধ্যে হালদায় পাহাড়ি ঢল নামে। এ সময়ে পূর্ণিমা-অমাবস্যার তিথিতে বজ্রসহ বৃষ্টিপাত ও তাপমাত্রা অনুকূলে থাকলে ডিম ছাড়ে রুই, কাতলা, মৃগেলসহ বিভিন্ন কার্পজাতীয় মাছ। সাধারণত এসব মাছ মধ্য এপ্রিল থেকে জুনের মধ্যে হালদায় ডিম ছাড়ে। তবে মে মাসেই বেশির ভাগ ডিম সংগ্রহ করা হয়। শিল্প-কারখানার দূষণসহ নানা কারণে হালদার বাস্তুতন্ত্র নষ্ট হচ্ছে, যার বিরূপ প্রভাব পড়ছে মাছের প্রজননে। এ কারণে গত বছর হালদা থেকে মাত্র সাত হাজার কেজি ডিম সংগ্রহ হয়। এবার একদিনেই ডিমে সংগ্রহ হয়েছে ২৫ হাজার ৫৩৬ কেজি।