ঢাকা, ১৮ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ || ৫ ফাল্গুন ১৪২৫

পরীক্ষামূলক

LifeTv24 :: লাইফ টিভি 24
৪৬

হিন্দু নারী-মুসলিম পুরুষের বিয়ে অবৈধ

প্রকাশিত: ২৩ জানুয়ারি ২০১৯  

ভারতীয় সুপ্রিম কোর্ট

ভারতীয় সুপ্রিম কোর্ট


হিন্দু নারীর সঙ্গে মুসলিম পুরুষের বিয়ে বৈধ নয়, কিন্তু দুই ধর্মের নারী পুরুষের মিলনে জন্ম নেওয়া সন্তানটি বৈধতা পাবে এবং ওই সন্তান তার পিতার সম্পত্তিতে উত্তরাধিকারী হবে- পিতার সম্পত্তি নিয়ে বিবাদের এক মামলায় ভারতীয় সুপ্রিম কোর্ট এই রায় দিয়েছে। 

সাম্প্রতিক সময়ে দেওয়া তাৎপর্যপূর্ন এই রায়ে দেশটির সর্বোচ্চ আদালত বলেছে যে একজন হিন্দু নারীকে মুসলিম পুরুষের বিয়ে করাটা ‘নিয়মিত বা বৈধ’ ঘটনা নয়। তবে এই ধরনের বিবাহের সূত্রে জন্ম নেয়া শিশুটি বৈধ। 

গতকাল (মঙ্গলবার) দেওয়া রায়ে আদালত বলেছে, এমন ক্ষেত্রে জন্মগ্রহণকারী সন্তানটি বৈধ বিবাহের ক্ষেত্রে জন্ম নেওয়া সন্তানের মতোই একইভাবে ন্যায্য এবং তিনি (বাচ্চা) তার পিতার সম্পত্তি পাওয়ার উপযুক্ত।

আলোচিত এই মামলায় হাইকোর্টের দেয়া রায়ের বিরুদ্ধে করা আপিলও প্রত্যাখ্যান করে সুপ্রিম কোর্ট।

আদালত তার পর্যবেক্ষণে বলেছে যে, এই ধরনের অনিয়মিত বিবাহের আইনি প্রভাব এটা যে স্ত্রী সম্পত্তির মালিকানা দাবি করতে পারবেন না। 

সুপ্রিমকোর্টের বিচারপতি এনভি রামানা ও বিচারপতি এম এম শান্তন গৌরার বেঞ্চ কেরালা হাইকোর্টের দেয়া রায় বহাল রাখেন। উল্লেখিত রায়ে হাইকোর্ট বলেছিল যে ওই  দম্পতির (মোহাম্মদ ইলিয়াস এবং বাল্লিম্মা) শামসুদ্দিন বৈধ সন্তান এবং পিতার সম্পত্তির বৈধ হকদার।
 
সুপ্রিম কোর্ট বেঞ্চ আরো বলেছে- যেহেতু হিন্দুরা মূর্তি পূজারী, তাই এটি পরিষ্কার যে কোনো মুসলিম পুরুষের সঙ্গে হিন্দু নারীর বিয়ে বিধিসম্মত নয়। 

পিতার সম্পত্তি দাবি করে দায়ের করা এক মামলায় মুসলিম পিতা ইলিয়াস ও হিন্দু মা বাল্লিম্মার পুত্র শামসুদ্দিন পিতার মৃত্যুর পর উত্তরাধিকারী হিসেবে সম্পত্তি দাবি করে মামলাটি করেন। নবভারতটাইমস.কম


এই বিভাগের আরো খবর