ঢাকা, ০৯ এপ্রিল বৃহস্পতিবার, ২০২০ || ২৬ চৈত্র ১৪২৬
good-food
৫৪

হোয়াটসঅ্যাপে সতর্কতা

চোর-হ্যাকার রুখতে এড়িয়ে চলুন ৭ ভুল

লাইফ টিভি 24

প্রকাশিত: ২২:৫৮ ১৫ মার্চ ২০২০  

সোশ্যাল মিডিয়ার যুগে খুব সহজেই আমরা একে অপরের সঙ্গে যোগাযোগ রাখতে পারি। তার মধ্যে ফেসবুক হল একটি অন্যতম মাধ্যম। এর মাধ্যমে আমরা দেশে-বিদেশে প্রত্যেক কাছের মানুষের সঙ্গে আমরা যোগাযোগ রাখতে পারি।

অন্য আরেকটি জনপ্রিয় সোশ্যাল মিডিয়া অ্যাপ হল WhatsApp। ফোন নম্বরের মাধ্যমেই আমরা যোগাযোগ রাখতে পারি এই অ্যাপে।

কিন্তু প্রত্যেকটি জিনিসেরই ভাল-খারাপ দুটি দিক আছে। WhatsApp-এর মাধ্যমে খুব সহজেই আমরা এক জায়গা থেকে অন্য জায়গার মানুষের সঙ্গে ম্যাসেজে, ভিডিও কল, ছবির আদান-প্রদান ইত্য়াদি হয়ে থাকে। কিন্তু আমাদের নিজস্ব কিছু ভুলের জন্যই আমরা অনেক সময় নানান রকম বিপদে পড়ে যাই।

আলোচনা করা যাক ভুলগুলি নিয়ে এবং আর এখনই সতর্ক হয়ে যান এই সব বিষয়ে।

১.  আমরা মাঝে মাঝেই আমাদের WhatsApp প্রোফাইল ফোটো পরিবর্তন করে থাকি। কিন্তু আমরা এটা জানিনা যে এর থেকে হতে পারে নানান বিপদ। কারণ আমাদের কনট্যাক্ট লিস্টে থাকা প্রত্যেকেই আমাদের WhatsApp প্রোফাইল ফোটো দেখতে পান। এমনকি এর থেকে অনেক রকম তথ্য় পেয়ে যান অনেকে। সেক্ষেত্রে আপনি আপনার WhatsApp থাকা তিনটি অপশনের (Everyone, My contacts, Nobody) মধ্যে যে কোন একটি ব্যবহার করতে পারেন।

২.  আমাদের ফোনের কনট্যাক্ট লিস্ট থেকে কিছু অপ্রাসঙ্গিক নম্বর ডিলিট করে দিতে হবে। যাদের সঙ্গে অনের আগে পরিচয় হলেও এখন আর কোনও যোগাযোগ নেই। এর ফলে বিপদ অনেকটা কম হতে পারে। কারণ, ভারতের বেশির ভাগ মানুষই এখন সোশ্যাল মিডিয়ার সঙ্গে যুক্ত।


৩.  WhatsApp ব্যবহার করার আগে এই অ্যাপের সেটিংসে গিয়ে প্রাইভেসিতে সব কিছু MY contact করে নিন। এর ফলে আপনি এই অ্যাপের মাধ্যমে আপনার পরিবারের কাউকে বা বন্ধুকে যাই কিছু দেবেন, তা শুধু সেই দেখতে পাবে। অন্য কেউ না।

৪.  অনেক সময়ই হয়ে যে আমরা না চাইলেও আমাদের কনট্যাক্ট লিস্টে থাকা কিছু মানুষ হটাৎ করেই কোনও একটি গ্রুপে নিয়ে নেয়। এর জন্য প্রাইভেসিতে থাকা My contacts except ব্যবহার করতে পারেন। এর ফলে যে কেউ চাইলেই আপনাকে গ্রুপে নিতে পারবে না।

৫. প্রতিদিন সকালে ঘুম থেকে ওঠার পর থেকেই WhatsApp-এ 'Good morning'-ধরনের কিছু ছবি সহ ম্যাসেজে আসতে থাকে। প্রয়োজনীয় ছবি ছাড়া অন্যান্য কোনও ছবি নিজের ফোনে রাখার প্রয়োজন নেই।

৬.  আমরা মাঝে মাঝেই WhatsApp-এ চ্যাট ব্যাকআপ করি। যদি কোনও চ্যাট আপনার প্রয়োজন হয়ে তাহলে সেটি আলাদা ভাবে সেভ করে রাখুন। কারণ, অযথা চ্যাট ব্য়াকআপের ফলে বাড়তে পারে নানান সমস্যা।

৭.  WhatsApp-এর মাধ্যমে এমন কোনও খবর ছড়াবেন না যার ফলে সমাজের কোনও ক্ষতি হতে পারে। এই ধরনের ম্যাসেজের ফলে আপনি গ্রেপ্তারও হতে পারেন।