ঢাকা, ২০ জুলাই শনিবার, ২০১৯ || ৪ শ্রাবণ ১৪২৬
LifeTv24 :: লাইফ টিভি 24
৯৭

তরুণ উদ্যোক্তাদের উদ্ভাবনমুখী হওয়ার আহ্বান

প্রকাশিত: ২২:৫৪ ২১ এপ্রিল ২০১৯  


প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ছেলে ও তাঁর তথ্যপ্রযুক্তি-বিষয়ক উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয় এ খাতের তরুণ উদ্যোক্তাদের প্রতি বিশ্বব্যাপী আইসিটি সেক্টরের নেতৃত্ব গ্রহণে তাঁদের নিজস্ব উদ্ভাবনী ধারণা সৃষ্টির আহ্বান জানিয়েছেন। রোববার রাজধানীর একটি হোটেলে দুই দিনব্যাপী চতুর্থ বিপিও সম্মেলনের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে তরুণ আইটি উদ্যোক্তাদের প্রতি এ আহ্বান জানান সজীব ওয়াজেদ জয়। তিনি বলেন, আওয়ামী লীগ সরকার ক্ষমতায় থাকলে দেশের উন্নতি হয়। 

 জয় বলেন, ‘বিজনেস প্রসেস আউটসোর্সিং (বিপিও) শিল্পের সঙ্গে যুক্ত ব্যক্তিবর্গের প্রতি আমার বার্তা হচ্ছে, আপনারা আপনাদের নিজস্ব উদ্ভাবন এবং ভিশন ঠিক করুন, নিজস্ব ধারণা অনুসন্ধান করুন, নতুন নতুন প্রযুক্তি আবিষ্কার করুন, ।’ তিনি বলেন, ‘বাংলাদেশের পার্শ্ববর্তী দেশ ভারত বিশ্বে আউটসোর্সিংয়ের কেন্দ্র হিসেবে বিশ্বব্যাপী সুনাম অর্জন করেছে। ভারতের আইটি ও বিপিও প্রতিষ্ঠানগুলোকে অনুকরণের চেষ্টা করে আমাদের বিপিও শিল্পের ভারতের মুখোমুখি  চলার কোনো প্রয়োজন নেই।’

জয় বলেন, ‘আমাদের তথ্যপ্রযুক্তি খাত এখনো অনেক নতুন এবং বাংলাদেশি বিপিও উদ্যোক্তা প্রতিষ্ঠানগুলোর উচিত নিজস্ব উদ্ভাবনী ধারণার মাধ্যমে নতুন সুযোগ খুঁজে দেখা।

সজীব ওয়াজেদ বলেন, ‘আওয়ামী লীগ সরকার ক্ষমতায় থাকলে দেশের উন্নতি হয়। বিশ্বের মধ্যে বাংলাদেশ দ্রুতগতিতে প্রযুক্তি ক্ষেত্রে উন্নতি করেছে। আমরা আরও দ্রুত দেশের উন্নয়ন করতে চাই।’ তিনি বলেন, দক্ষ জনশক্তি তৈরি করার ক্ষেত্রে আইসিটি খাতে তরুণদের বিভিন্ন প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করছে সরকার। কিন্তু দুঃখজনক হচ্ছে আইসিটি ক্ষেত্রে নারীদের অংশগ্রহণ ১০ ভাগেরও কম। তিনি  বলেন, ‘১০ বছর আগে কেউ কল্পনাও করেনি ইউনিয়ন পর্যায়ের মানুষ ইন্টারনেট–সেবা পাবে। কিন্তু আওয়ামী লীগ সরকার সফলতার সঙ্গে সেটা করতে সক্ষম হয়েছে। আইসিটি খাতে উন্নয়নের জন্য আমরা বিভিন্ন পদক্ষেপ গ্রহণ করেছি এবং অল্প খরচেই এই উন্নয়ন করে দেখাচ্ছি।’

ডাক ও টেলিযোগাযোগ ও আইসিটিমন্ত্রী মোস্তাফা জব্বারের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন আইসিটি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক।  স্বাগত বক্তব্য দেন বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন অব কল সেন্টার অ্যান্ড আউটসোর্সিংয়ের (বিএসিসিও) সভাপতি ওয়াহেদ শরীফ। আইসিটি বিভাগের সচিব এন এম জিয়াউল আলম, ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগের ভারপ্রাপ্ত সচিব অশোক কুমার বিশ্বাস এবং বাংলাদেশ টেলিকমিউনিকেশন রেগুলেটরি কমিশনের (বিটিআরসি) চেয়ারম্যান মো. জহিরুল হক অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন।


এই বিভাগের আরো খবর