ঢাকা, ০৫ ফেব্রুয়ারি রোববার, ২০২৩ || ২২ মাঘ ১৪২৯
good-food
১১০

বাচ্চা ঘুমাতে চায় না? জেনে নিন সহজ কিছু কৌশল

লাইফ টিভি 24

প্রকাশিত: ১৪:৪৬ ৭ নভেম্বর ২০২২  

পর্যাপ্ত ঘুম এনার্জি, নিউরোলজিক্যাল ফাংশন, মেজাজ ঠিক থাকা, শারীরিক এবং মানসিক বিকাশের ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। তাই বাচ্চার সুস্বাস্থ্য বজায় রাখতে পুষ্টিকর খাদ্যের পাশাপাশি পর্যাপ্ত পরিমাণ ঘুমও অত্যন্ত প্রয়োজনীয়। এমন কিছু খাবার আছে যা বাচ্চার পুষ্টির পাশাপাশি তাকে ভালোভাবে ঘুমাতেও সহায়তা করে।

 

বাচ্চাদের খাদ্য তালিকায় এগুলো অন্তর্ভুক্ত করতে পারেন-

দুধ

এক গ্লাস গরম দুধ ভালো ঘুম হওয়ার সবচেয়ে কার্যকর উপায়। দুধে ট্রিপটোফ্যান থাকে যা সেরোটোনিন এবং মেলাটোনিন উত্‍পাদনের জন্য অত্যন্ত প্রয়োজনীয় একটি অ্যামিনো অ্যাসিড। দুধ ভালো ঘুম হতে সহায়তা করে।

 

ডিম

ডিম কেবলমাত্র উচ্চমানের প্রোটিন এবং পুষ্টি সমৃদ্ধই নয় এটি ট্রিপটোফ্যান-এর প্রাকৃতিক উত্‍স। যা এক ধরনের অ্যামিনো অ্যাসিড। এটি সেরোটোনিন তৈরিতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। যা স্লিপ সাইকেল নিয়ন্ত্রণে সহায়তা করে।

 

ছোলা

ছোলা অ্যামিনো অ্যাসিড ট্রিপটোফ্যান সমৃদ্ধ। যা মেলাটোনিন উত্‍পাদনে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। ছোলাতে ভিটামিন বি৬ থাকে, যা সেরোটোনিন উত্‍পাদনে অত্যন্ত প্রয়োজনীয়। মেলাটোনিন ও সেরোটোনিন উভয়ই দুর্দান্ত ঘুম হতে সহায়তা করে।

 

কলা

ম্যাগনেসিয়ামের ঘাটতির ফলে ঘুমের সমস্যা দেখা দিতে পারে। আর কলা ট্রিপটোফ্যান এবং ম্যাগনেসিয়ামের দুর্দান্ত উত্‍স। তাই এটি ভালো ঘুম হতে সাহায্য করে।

 

খেজুর

বাচ্চা যদি মিষ্টি জাতীয় কিছু খেতে চায় তাহলে খেজুর সবচেয়ে ভালো অপশন হতে পারে। খেজুর ভালো ঘুমের জন্য দুর্দান্ত কাজ করে। খেজুরে ভিটামিন- বি৬ এবং পটাশিয়াম থাকে যা ঘুমের ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে।

 

আখরোট

আখরোট মেলাটোনিন হরমোনের একটি দুর্দান্ত উত্‍স। যা ঘুম নিয়ন্ত্রণের ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। এতে স্বাস্থ্যকর ফ্যাট, ফাইবার এবং উদ্ভিদ-ভিত্তিক প্রোটিন থাকে। যা ভালো ঘুমের জন্য দুর্দান্ত কাজ করতে পারে।