ঢাকা, ১৪ জুলাই রোববার, ২০২৪ || ২৯ আষাঢ় ১৪৩১
good-food
৩৬৩

‘ম্যাঙ্গো স্পেশাল ট্রেন’ চালু ২০ মে

লাইফ টিভি 24

প্রকাশিত: ১৪:৫০ ১৫ মে ২০২৩  

আগামী ২০ মে ‘ম্যাঙ্গো স্পেশাল ট্রেন’ চালু হচ্ছে বলে জানিয়েছেন চাঁপাইনবাবগঞ্জের জেলা প্রশাসক একেএম গালিভ খাঁন। সোমবার (১৫ মে) সকালে জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের সম্মেলন কক্ষে আম পরিবহন সংক্রান্ত মতবিনিময় সভায় তিনি এ তথ্য জানান।

 

চাঁপাইনবাবগঞ্জের গোমস্তাপুর উপজেলার রহনপুর রেলস্টেশন ছেড়ে চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর, রাজশাহী, ঈশ্বরদী হয়ে ঢাকার কমলাপুর ষ্টেশন পর্যন্ত ‘আম মৌসুমে’ চলাচলকারী বিশেষ ট্রেন সার্ভিস ‘ম্যাংগো স্পেশাল’। চলতি মৌসুমে এ সার্ভিস চালুর ব্যাপারে ১১ মে মতবিনিময় সভা করে পশ্চিমাঞ্চল রেলওয়ে।

 

চাঁপাইনবাবগঞ্জ স্টেশনে আয়োজিত সভায় রেলওয়ে প্রতিনিধি দলের নেতৃত্ব দেন পশ্চিমাঞ্চল রেলের চীফ কমার্শিয়াল ম্যানেজার (সিসিএম) সুজিত কুমার বিশ্বাস। সভায় বক্তব্য দেন আম ব্যবসায়ী ও সরবরাহকারী আশরাফুল ইসলাম, সম্পদ ঠাকুর, চাঁপাইনবাবগঞ্জ স্টেশন মাষ্টার মো.ওবাইদুল্লাহসহ আম সংশ্লিষ্টরা ও গণমাধ্যম কর্মীরা।

 

সভায় অংশগ্রহণকারীরা ম্যাংগো ট্রেন চালুর তারিখ ও সময়, আম পরিবহন ভাড়া, ট্রেনে আম পরিবহন খরচ, ওয়াগন সংখ্যা, ঢাকাঞ্চলের ডেলিভারী স্টেশনের (পয়েন্ট) সংখ্যা, ট্রেনটি লাভজনকভাবে পরিচালনায় করণীয় ইত্যাদি বিষয়ে মতামত দেন।

 

সিসিএম সুজিত কুমার বিশ্বাস বলেন, চলমান আর্থিক মন্দা ও রেলওয়ের সীমাবদ্ধতা সত্তেও বিগত কয়েকবছরের ন্যয় এ বছরও ম্যাংগো স্পেশাল ট্রেন চালুর সিদ্ধান্ত নিয়েছে রেলওয়ে। ট্রেন সর্ভিসটি যথেষ্ট লাভজনক না হলেও প্রান্তিক চাষী ও ব্যবসায়ীদের কথা বিবেচনায় নিয়ে ট্রেনটির পরিচালনা অব্যহত রাখার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। গত মৌসুমে ট্রেনটি ১৩ জুন থেকে ২৩ জুন পর্যন্ত মাত্র ১০ দিন পরিচালিত হয়। এর আগে করোনাকালীন ট্রেনটি যথেষ্ট সাড়া ফেলে।

 

সংশ্লিষ্ট সব পক্ষের বক্তব্য শোনার পর তিনি আরো বলেন, চলতি মৌসুমে ট্রেনটি আগামী ২০ মে থেকে চালুর প্রস্তাব করা হবে। রেলওয়েতে ভাড়া কমানোর সূযোগ নেই। কাজেই পূর্বের ভাড়া বহাল রাখার চেষ্টা করা হবে। সূলভ ভাড়ায় পরিচালিত আম ও কাঁচামালবাহী পার্শ্বেল ট্রেনটিতে বিদ্যমান ৫টি মালবাহী ওয়াগন বৃদ্ধি করে ৭টি ওয়াগন যুক্তের সুপারিশ করা হবে। এছাড়া ঢাকাঞ্চলের ডেলিভারি স্টেশন আরো বৃদ্ধি করা যায় কিনা সেটিও খতিয়ে দেখা হবে।

 

সিসিএম বলেন, ট্রেনটি সফল কার্যকর ও লাভজনকভাবে পরিচালনার জন্য ব্যাপক প্রচারণা দরকার। গণমাধ্যমসহ আম সংশ্লিষ্ট সবাইকে এ ব্যাপারে চেষ্টা করতে হবে। ব্যবহারকারীদের সুবিধা ও বিভিন্ন সমস্যা সমাধানে রেলওয়ের পক্ষ থেকে যা কিছু সম্ভব তা করা হবে। মতবিনিময় সভায় চাঁপাইনবাবগঞ্জ থেকে চলাচলকারী বিভিন্ন ট্রেনের সমস্যা, ট্রেন ও আসন সংখ্যা, স্টেশনের অবকাঠামোগত ও নিরাপত্তা সমস্যা নিয়েও আলোচনা হয়। 

 

এসব ব্যাপার ঊর্ধতন কর্তৃপক্ষকে অবহিত করা হবে বলে জানান সুজিত কুমার। পরে তিনি সকলকে নিয়ে ষ্টেশন প্লাটফর্ম ও স্টেশন সংলগ্ন বিভিন্ন এলাকা সরেজমিনে ঘুরে দেখেন।

 

উল্লেখ্য. গত ৩ মে জেলা প্রশাসকের সভাপতিত্বে জেলার আম সংক্রান্ত সর্বোচ্চ নীতিনির্ধারণী সভায় যত দ্রত সম্ভব ম্যাংগো স্পেশাল ট্রেন চালু করতে সরকারের কাছে সুপারিশের সিদ্ধান্ত হয়।