ঢাকা, ২৪ জুন সোমবার, ২০২৪ || ১১ আষাঢ় ১৪৩১
good-food
৩২০

১২০০ কিডনি প্রতিস্থাপনের মাইলফলক গড়লেন ডা. কামরুল

লাইফ টিভি 24

প্রকাশিত: ০০:৫৮ ১৯ অক্টোবর ২০২২  

দেশে প্রথম চিকিৎসক হিসেবে ১২০০ কিডনি প্রতিস্থাপনের মাইলফলক গড়েছেন প্রখ্যাত বিশেষজ্ঞ ও সেন্টার ফর কিডনি ডিজিজেস অ্যান্ড ইউরোলজি (সিকেডি) হাসপাতালের প্রতিষ্ঠাতা অধ্যাপক ডা. কামরুল ইসলাম। মঙ্গলবার (১৮ অক্টোবর) রাতে সিকেডি হাসপাতালে একজন রোগীর দেহে কিডনি প্রতিস্থাপনের মাধ্যমে এই রেকর্ড গড়েন তিনি।

 

হাসপাতাল সূত্রে জানা যায়, সন্ধ্যার পর ৪৫ বছর বয়সী রোগী কাউসারের দেহে কিডনি প্রতিস্থাপন কার্যক্রম শুরু করেন অধ্যাপক কামরুলসহ ১০ জনের বিশেষজ্ঞ টিম। প্রতিস্থাপন শেষ হয় রাত ১০টার দিকে। কিডনি দাতা (ডোনার) ছিলেন রোগীর স্ত্রী।

 

অধ্যাপক কামরুল বলেন, আল্লাহর অশেষ রহমতে ১২০০ রোগীর ট্রান্সপ্ল্যান্ট কার্যক্রম সফলভাবেই সম্পন্ন করলাম। কিডনি গ্রহীতা ও দাতা ভালো আছেন।

 

১০০০ কিডনি প্রতিস্থাপন করে দেশ-বিদেশে আলোচনায় আসেন দেশের প্রথিতযশা এ সার্জন।  ২০০৭ সালের সেপ্টেম্বর থেকে সফলভাবে রোগীর কিডনি প্রতিস্থাপন করে আসছেন তিনি। সাফল্যের হার শতকরা ৯৫ শতাংশ, যা আন্তর্জাতিক পর্যায়ের সমকক্ষ।

 

ঢাকা মেডিকেল কলেজের কে-৪০ ব্যাচের শিক্ষার্থী অধ্যাপক কামরুল ইসলাম। ১৯৮২ সালে ৮টি মেডিকেল কলেজের সম্মিলিত ভর্তি পরীক্ষায় প্রথম স্থান অধিকার করেন তিনি। উচ্চশিক্ষাগ্রহণ করেন যুক্তরাজ্যের রয়্যাল কলেজ অব সার্জনস অব এডিনবার্গে।

 

মুক্তিযুদ্ধের সময় অধ্যাপক কামরুল ইসলামের বাবা আমিনুল ইসলাম পাকশী ইক্ষু গবেষণা ইনস্টিটিউটে কর্মরত ছিলেন। মুক্তিযোদ্ধাদের সহযোগিতা করায় স্থানীয় রাজাকার ও বিহারীরা তাকে হত্যা করে।

 

১৯৯৩ সালে স্বাস্থ্য ক্যাডারে যোগ দেন অধ্যাপক কামরুল ইসলাম। ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব কিডনি ডিজিজেস অ্যান্ড ইউরোলজি হাসপাতালের সহকারী অধ্যাপক ছিলেন তিনি। ২০১১ সালে সরকারি চাকরি ছেড়ে প্রতিষ্ঠা করেন সিকেডি হাসপাতাল।

সাকসেস স্টোরি বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর