ঢাকা, ০৫ আগস্ট বুধবার, ২০২০ || ২১ শ্রাবণ ১৪২৭
good-food
৪৭

করোনাসেবায় আস্থা : টেলিচিকিৎসা দিচ্ছেন ডা. খোশরোজ সামাদ

লাইফ টিভি 24

প্রকাশিত: ২২:০৩ ৩০ জুলাই ২০২০  

বর্তমান বিশ্বের সাথে সাথে আমাদের দেশে আঘাত হেনেছে প্রাণঘাতি করোনাভাইরাস। প্রতিদিনই বাড়ছে মৃত ও আক্রান্তের সংখ্যা। চিকিৎসা বিজ্ঞান আজ পর্যন্ত এর কোনো সঠিক চিকিৎসার ওষুধ বা প্রতিষেধক আবিস্কার করতে পারেনি।

 

গেল ২১ জানুয়ারি আমাদের দেশে করোনাভাইরাস শনাক্তের নমুনা পরীক্ষা শুরু হয়। প্রথম করোনা শনাক্ত হয় ৮ মার্চ। আর এ রোগে প্রথম মৃত্যু হয় ১৮ মার্চ।

 

করোনা প্রাদুুর্ভাবের পর দেশজুড়ে শুরু হয় এক ভীতিকর পরিবেশ। ২৫ মার্চ থেকে শুরু হয় অঘোষিত লকডাউন। চলে এক টানা ৬৪ দিন। অফিস আদালত বন্ধের পাশাপাশি বন্ধ হয়ে যায় ডাক্তারের চেম্বার। বেড়ে যায় অসহায় রোগিদের আহাজারি। এর মাঝে জানা গেল, করোনা টেস্টের নামে হচ্ছে জালিয়াতি। বন্ধ করা হলো রিজেন্ট ও জেকেজি হাসপাতাল। সাহাবুদ্দিন হাসপাতালেও পাওয়া গেল করোনা টেস্টের নামে জালিয়াতির অভিযোগ।

 

ফলে, চিকিৎসার ক্ষেত্রে মানুষের মনে সৃষ্টি হয় আস্থাহীনতা। এ সবের মাঝেও যে চিকিৎসকেরা জীবনের ঝুঁকি নিয়ে করোনা রোগিদের চিকিৎসা সেবা দিয়ে যাচ্ছেন, তাদেরই একজন মেজর ডা. খোশরোজ সামাদ। বর্তমানে ঢাকার সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে কর্মরত। দীর্ঘ ২৫ বছরের অভিজ্ঞতা ছাড়াও তিনি হজ মেডিকেল টিম, জাতিসংঘের শান্তি মিশনে বিভিন্ন দেশের রোগিদের চিকিৎসা করেছেন।

 

দেশের অসহায় রোগিদের কথা চিন্তা করে মেজর ডা. খোশরোজ সামাদ শুরু করেছেন টেলিমেডিসিনের মাধ্যমে রোগির সেবা। উদ্দেশ্য, দেশের সব স্থান থেকে চিকিৎসা নেয়ার সুযোগ সৃষ্টি।

 

চিকিৎসা নেবেন যেভাবে :


চিকিৎসা সেবার জন্য  WhatsApp ০১৭০৭৫৪৯৩৫৯  নম্বরে এসএমএস (SMS) পাঠাতে হবে। সেই সাথে জানাতে হবে :


*  জ্বর আছে কিনা? থাকলে তা কতদিন থেকে আছে (যেমন - জ্বর - ৩ দিন)


*  পাতলা পায়খান আছে কিনা? থাকলে কতদিন ধরে আছে। (যেমন - পাতলা পায়খানা-১ দিন)


*  শুকনো কাশি আছে কিনা? থাকলে কতদিন থেকে আছে (যেমন-  শুকনো কাশি-২ দিন)


*  রোগির অন্য রোগ যেমন - ডায়াবেটিস, উচ্চরক্তচাপ ইত্যাদি থাকলে উল্লেখ করতে হবে।


*  কোন প্রেসক্রিপশন থাকলে সেটির ফটো তুলে বা স্ক্যান করে পাঠাতে হবে।


*  রোগির নাম, বয়স, ঠিকানা, পেশা উল্লেখ করতে হবে।


*  জরুরি রোগির ক্ষেত্রে সরাসরি ফোন করা যাবে।

 

এসএমএস পাওয়ার পর ডা: খোশরোজ দ্রুততম সময়ে কল ব্যাক করবেন। বিস্তারিত জেনে ব্যবস্থাপত্র দেবেন তিনি।

 

এছাড়া যদি কোনো রোগির করোনা টেস্ট দরকার হয় সেখানেও তিনি সার্বিক সহযোগিতা করছেন। সপ্তাহের ৭ দিনই টেলিমেডিসিন সেবা দিচ্ছে অভিজ্ঞ এই চিকিৎসক।

 

গত ২ জুলাই করোনায় ডাঃ সামাদের মাতৃবিয়োগ করোনা রোগিদের চিকিৎসা দেবার জন্য উৎসাহী হয়েছেন এবং দেশের প্রত্যেক অঞ্চল থেকে যাতে রোগিরা সেবা পেতে পারেন সেজন্য তিনি এ উদ্যোগ গ্রহণ করেছেন।তার বাবা ও একমাত্র বোনও (ডাক্তার) করোনায় আক্রান্ত হয়েছিলেন। তারা এখন সুস্থ হয়ে বাসায় অবস্থান করছেন।

 

দেশের এই ক্রান্তিলগ্নে মেজর ডাঃ খোশরোজ সামাদের টেলিমেডিসিনের মাধ্যমে চিকিৎসার দেয়ার উদ্যোগ অবশ্যই প্রশংসার দাবি রাখে। খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, তার এ টেলিমেডিসিন সেবা রোগিদের স্বস্তি এনে দিচ্ছে। ঈদের ছুটির মধ্যেও টেলিচিকিৎসা দিচ্ছেন মানবসেবায় অবদান রাখা এই চিকিৎসক।