ঢাকা, ৩১ অক্টোবর শনিবার, ২০২০ || ১৬ কার্তিক ১৪২৭
good-food
১০৫

গ্রিন না ব্ল্যাক টি, স্বাস্থ্যের জন্য কোনটা বেশি উপকারী?

লাইফ টিভি 24

প্রকাশিত: ১৯:৩০ ১৩ অক্টোবর ২০২০  

গ্রিন টি এবং ব্ল্যাক টি, স্বাস্থ্যের জন্য দুটিই উপকারী। কিন্তু এর মধ্যে কোনটি বেশি ভালো? ক্লান্ত হয়ে পড়লে কিংবা কাজের মাঝে ঘুম পেলে সমাধান হিসেবে যেটার কথা সব আগে মাথায় আসে, সেটা হলো ধোঁয়া ওঠা ১ কাপ চা। 

 

চটজলদি এনার্জি পেতে এ পানীয় জাদুর মতো কাজ করে। তবে দুধ, চিনি মেশানো চা সুস্বাদু হলেও শরীরের পক্ষে খুব একটা উপকারী নয়। তাই স্বাস্থ্য ভালো রাখতে বেছে নিন ব্ল্যাক টি অথবা গ্রিন টি।

 

ব্ল্যাক টি এবং গ্রিন টি, দুটিই তৈরি হয় ক্যামেলিয়া সিনেসিস নামক বিশেষ ধরনের চা পাতা থেকে। কিন্তু এ দুই ধরনের চা-ই কি স্বাস্থ্যের পক্ষে সমান উপকারী? জানুন বিস্তারিত-  
গ্রিন টি’র প্রস্তুতি

 

গ্রিন টি বানানোর জন্য় চা পাতা সংগ্রহ করে প্রথমে শুকানো হয়। এরপর প্যানের ওপর দিয়ে তা গরম করা হয়। ফলে এটি অক্সিডাইজড হয় না। এর ফ্লেভার ও রং বজায় থাকে।

 

 

ব্ল্যাক টি’র প্রস্তুতি

ব্ল্যাক টি বানানোর জন্য চা পাতা তুলে শুকিয়ে গুঁড়া করা হয়। এগুলো ফের ভেজানোর আগে অক্সিডাইজড করা হয়। এর ভেতরে থাকা এনজাইমে অক্সিডেশন হয়। ফলে চায়ের রং কালচে বাদামি হয়। সেজন্য ব্ল্যাক টি’র অ্যারোমা ও এসেন্স গ্রিন টি’র চেয়ে বেশি তীব্র।

 

প্রস্তুতির পদ্ধতিতে পার্থক্য থাকায় গ্রিন টি অনেক বেশি প্রাকৃতিক এবং ব্ল্যাক টি ফারমেন্টেড ও অক্সিডাইজড।

 

গ্রিন টি’র উপকারিতা

এতে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে ইজিসিজি। এ অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট কার্ডিওভাস্কুলার অসুখ থেকে শরীরকে রক্ষা করে। দেহ ডিটক্সিফাই করতে সাহায্য করে। গ্রিন টি মেটাবজিলম বাড়াতে সহায়তা করে এবং রোগ-প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়। এছাড়া ব্ল্যাক টি’র তুলনায় গ্রিন টি কম অম্লভাবযুক্ত।

 

ব্ল্যাক টি’র উপকারিতা

এর মধ্যে আছে অ্যামাইনো অ্যাসিড। এটি মনঃসংযোগ ও মনকে রিল্যাক্স করতে সাহায্য করে। অল্প মাত্রায় ব্ল্যাক টি খেলে শরীরে স্ট্রেস হরমোন কমে। হার্টের জন্যও এটি অত্যন্ত উপকারী। ব্লাড সুগার এবং কোলেস্টরলের মাত্রাও নিয়ন্ত্রণে রাখতে ভূমিকা রাখে এ চা।

 

ব্ল্যাক টি’র তুলনায় গ্রিন টি’তে কম ক্যাফেইন রয়েছে। তবে কোন গাছ থেকে চা পাতা সংগ্রহ করা হয়েছে, সেটার ওপরে নির্ভর করে ক্যাফেইনের পরিমাণ। 

 

১ কাপ কফিতে যতটা ক্যাফেইন থাকে, সেটার ৪ ভাগের ১ ভাগ ক্যাফেইন থাকে ১ কাপ গ্রিন টি’তে। আর ১ কাপ ব্ল্যাক টি’তে থাকে ১ কাপ কফির তুলনায় ৩ ভাগের ১ ভাগ ক্যাফেইন।

 

ক্যাফেইন শরীরের নার্ভাস সিস্টেম সক্রিয় করে। আমাদের সজাগ ও সতর্ক করে তোলে। তাই ইনস্ট্যান্ট এনার্জি পেতে গ্রিন টি’র তুলনায় ব্ল্যাক টি বেশি কার্যকরী। 

 

তবে চায়ের কাপে চুমুক দিয়ে রিল্যাক্স পেতে চেইলে গ্রিন টি বেছে নেয়াই বেশি যুক্তিযুক্ত।