ঢাকা, ১০ ডিসেম্বর মঙ্গলবার, ২০১৯ || ২৬ অগ্রাহায়ণ ১৪২৬
LifeTv24 :: লাইফ টিভি 24
১২৭

চলনবিলে কমে যাচ্ছে শুটকি মাছের উৎপাদন 

প্রকাশিত: ২০:১২ ২৮ নভেম্বর ২০১৯  


রিপন দাস : চলনবিলে শুটকি মাছের উৎপাদন কমে যাওয়ার পাশাপাশি হারাচ্ছেন কর্মসংস্থানও। দেশের সবচেয়ে বড় এ চলনবিলের শুটকি মাছ দেশের চাহিদা পূরণ করেও রপ্তানী করা হতো বিদেশে। কিন্তু জলবায়ুর পরিবর্তনে পরিবেশ বিপর্যয়ে চলনবিলেও এ প্রভাব পড়তে শুরু করেছে। 
শুটকি মাছের ব্যবসায় এ অঞ্চলের বড় অর্থনৈতিক পরিবর্তন ঘটিয়েছে মানুষের। কিন্তু ভরা মৌসুমেও চলনবিলে মাছের সংখ্যা কমে যাওয়ায় বেকার সময় পার করছেন অনেকেই। 
এ বিলের শুটকি মাছ সবচেয়ে বেশি রপ্তানী করা হতো নীলফামারী জেলার সৈয়দপুরে। কিন্তু এর পরিমাণ কমে গেছে অনেকটাই বলছেন শুটকি ব্যবসায়ী মোঃ জয়নাল প্রামানিক। তিনি বলেন, গত বছর প্রায় দুই হাজার মণ নানা ধরণের মাছের শুটকি রপ্তানী করা হয়েছে দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে। গত বছরের তুলনায় এবার এ সংখ্যা দাঁড়িয়েছে প্রায় অর্ধেকে। আর শুটকির চাতাল কমেছে অনেক। 
নাটোরের সিংড়া থানার নিংগণ এলাকার শুটকি ব্যবসায়ী সালাম গত বছর ট্রাক ভরে শুটকি বিক্রি করলেও এবার প্রায় খালি রয়েছে চাতাল। 
চলনবিলের বিভিন্ন এলাকায় গিয়ে দেখা য়ায়, পুঁটি, টাকি ও শৈল মাছের শুটকির পরিমাণ বেশি। ব্যবসায়িরা জানান, এ বিলে আর কোন মাছের দেখা পাওয়া যায় না। আগে বোয়ালসহ নানা ধরণের ছোট বড় মাছের শুকটি করা হতো। কিন্তু এখন এতটাই কমে গেছে যে, লাভের অংক গুণাতো দূরের কথা পরিশ্রমের দামও হয় না, বলছেন ব্যবসায়িরা। 
চলনবিলের বেশিরভাগ শুটকি মাছ চাতাল রয়েছে সিরাজগঞ্জ জেলার তাড়াশের মহিশলুটিতে ৮ থেকে ১০টি ও নাটোরের সিংড়ায় ৫ থেকে ৬টি ও গুরুদাসপুরেও প্রায় একই, আর সবচেয়ে বেশি হতো নওগাঁর আত্রাই উপজেলায় ২৫ থেকে ৩০ টি চাতালে।    
ব্যবসায়ি মোঃ জয়নাল প্রামানিক জানান, চলনবিলে শুটকি ভারতেও রপ্তানি করা হতো। কিন্তু এখন আর তেমন রপ্তানি করা হয় না। সৈয়দপুরে শুটকি মাছের একটি বড় আমদানি ও রপ্তানীর বাজার। সেখান থেকেই মূলত দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে বিশেষ করে উত্তরাঞ্চলে এর চাহিদা পূরণ করা হতো। তবে তিনি বলেন, প্রতি বছর শুটকি মাছের উৎপাদন কমে যাচ্ছে ব্যাপক। এভাবে হয়তো এক সময় আর এ ব্যবসার কেউ থাকবে না। যেখানে আগে নারীই এ কাজে বেশি আসতো। কিন্তু মাছের পরিমাণ কমে যাওয়ায় এখানে নারীদের তেমন লাভ না হওয়ায় উৎসাহ কমে গেছে। 
উত্তরাঞ্চলের রংপুর ও দিনাজপুরে শুটকি মাছের চাহিদা থাকলেও আশানুরুপ ফল পাচ্ছেন না ব্যবসায়িরা। নানা জাতের শুটকি বাজারে না থাকায় এমনটা হচ্ছে। হাতে গোনা কয়েক জাতের মাছের শুটকি খাদ্যভাসে তেমন রাখতে চান না বলছেন ব্যবসায়িরা।


এই বিভাগের আরো খবর