ঢাকা, ২৫ সেপ্টেম্বর শুক্রবার, ২০২০ || ৯ আশ্বিন ১৪২৭
good-food
৬৮

জন্মের পর শিশু কাঁদে কেন?

লাইফ টিভি 24

প্রকাশিত: ১৯:৪৯ ১৪ সেপ্টেম্বর ২০২০  

কমবেশি আমরা সবাই জানি, শিশু জন্ম নেয়ার সঙ্গে সঙ্গে উচ্চস্বরে কাঁদতে শুরু করে। এটিই হলো তার জন্মানোর সঙ্কেত। তবে কিছু ক্ষেত্রে জন্মের পর অনেক শিশুকে কাঁদতে দেখা যায় না। জন্মের পর স্বাভাবিক নিয়মে না কাঁদলে তাকে পশ্চাদদেশে থাপ্পড় মেরে কাঁদানো হয়। 

 

কিন্তু আপনি কি জানেন, জন্মগ্রহণের সঙ্গে সঙ্গে শিশু কেন কেঁদে ওঠে? আর যদি না কাঁদে তাহলেই বা কী হয়? আসুন জেনে নেয়া যাক জন্মের পর শিশুর কান্নাকাটি করা কতটা গুরুত্বপূর্ণ। কোন্ কারণে জন্মানোর সঙ্গে সঙ্গেই তার কান্না জরুরী?

 

জন্মের সাথে সাথে মায়ের গর্ভ থেকে আলাদা হয়ে যায় শিশু। এসময় চিৎকার করে কাঁদলে বোঝা যায় তার ফুসফুস ও হার্ট ঠিকঠাক কাজ করছে। কান্নার ফলে শিশুর স্বাস্থ্য সম্পর্কে বোঝা যায়। 

 

খুব জোরে কেঁদে উঠলে ধরা হয় শিশু সুস্থ আছে। খুব ধীর গলায় কান্নাকাটি করলে অনুমাণ করা হয় তার কিছু স্বাস্থ্য সমস্যা রয়েছে। আর না কাঁদলে অশনিসংকেত বহন করে। 

 

জন্মের আগ পর্যন্ত মায়ের দেহের সঙ্গে সংযুক্ত নাভিরজ্জুর (আম্বিলিক্যাল কর্ড) মধ্য দিয়ে শ্বাস নেয় শিশু। জন্মের কয়েক সেকেন্ড পরে সে নিজে থেকেই শ্বাস নেয়। 

 

শিশু গর্ভের বাইরে এলে শরীরের বিভিন্ন ফ্লুইড নিঃসরণ হয়। ফলে হৃদপিণ্ডের শ্বাস-প্রশ্বাসের পথ আটকে যায়। তাই শিশু চিৎকার করে কাঁদতে শুরু করে। এ কান্নার কারণে তার শ্বাস-প্রশ্বাসের পথ পরিষ্কার হয়ে যায়। এরপর স্বাভাবিকভাবে শ্বাস নিতে পারে সে।

স্বাস্থ্য বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর