ঢাকা, ৩১ অক্টোবর শনিবার, ২০২০ || ১৬ কার্তিক ১৪২৭
good-food
৪১

মাছ-মাংসের চেয়ে সবজির দাম বেশি

লাইফ টিভি 24

প্রকাশিত: ১৫:২৬ ৯ অক্টোবর ২০২০  

কয়েকদিনের ব্যবধানে ঢাকার বাজারে বেশ বেড়েছে সবজির দাম। মাছ-মাংসের দামও ছাড়িয়ে গেছে কোনোটি। শুক্রবার রাজধানীর বিভিন্ন কাঁচাবাজার ঘুরে এ চিত্র  দেখা গেছে।

 

কারওয়ান ও হাতিরপুল বাজারে ৫০ টাকা কেজির নিচে কোনো সবজি নেই! করলা বিক্রি হচ্ছে ১০০ টাকা কেজি। ঢেঁড়শ, লাউ, কাঁকরোল, বরবটি ও কচুর মুখি ৭০ টাকা কেজি দরে বিকোচ্ছে। প্রতিকেজি বেগুন ও চিচিঙ্গার দাম ৯০ টাকা, পটল ও মুলা ৭০ টাকা এবং কাঁচা পেঁপে ৫০ টাকা।

 

বিভিন্ন শাকের দামও চড়া। প্রতি আঁটি লাউ শাক বিক্রি হচ্ছে ৫০ টাকা, পুঁই শাক ৩০ টাকা, কচুর শাক ১৫ টাকা, লাল শাক ১৫ টাকা, শাপলা ১০ টাকা এবং কলমি শাক ১৫ টাকা। এককেজি টমেটো ১১০ টাকা এবং শসা ৮০ থেকে ১০০ টাকা দরে কিনছেন ক্রেতারা। আর কাঁচামরিচের কেজি ২৮০ টাকা।

 

সবজির দাম বৃদ্ধির কারণ প্রসঙ্গে বিক্রেতা আব্দুল আলিম বলেন, ৩/৪ দিন আগে পাইকারি বাজারে দাম কম ছিল। এখন একটু বেড়েছে। এর প্রভাব পড়েছে খুচরা বাজারে। বন্যা ও বর্ষায় উৎপাদনও ব্যহত হচ্ছে।

 

তবে মোটামুটি স্থিতিশীল রয়েছে মাছ, মুরগি ও ডিমের দাম। প্রতি ডজন হাঁসের ডিম ১৮০ টাকা, লেয়ার মুরগির ডিম ১১৫ টাকা, দেশি মুরগির ডিম ১৫০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। গরুর মাংস ৬০০ টাকা এবং খাসির মাংস ৯০০ টাকা কেজি দরে বিকোচ্ছে। আর পেঁয়াজ আগের মতোই ৯০ থেকে ১০০ টাকা কেজি।

 

এছাড়া ব্রয়লার মুরগির দাম প্রতিকেজি ১৩৫ টাকা, দেশি মুরগি ৪৫০ টাকা, ফার্মের কক বা সোনালি মুরগি ২৫০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। আর মাঝারি সাইজের প্রতিকেজি রুই-কাতলা ২২০ থেকে ২৫০ টাকা, আইড় ৬০০ টাকা, কাচকি ৫০০ টাকা, শিং ৬৫০ টাকা এবং ইলিশ ৭৫০ থেকে ৯০০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

 

সকালে হাতিরপুলে বাজার করতে আসেন এলাকার প্রবীণ বাসিন্দা আব্দুর রউফ। মাছ ও মাংসের দাম বেশি ভেবে সেগুলো আগে কেনেন তিনি। আর শেষে সবজি কিনতে গিয়ে টান পড়ে তার পকেটে।

 

তিনি বলেন, সবজির দাম এত বেড়েছে তা ভাবিনি। মাছ-মুরগির দাম একটু বেশি ভেবে এগুলো আগে কিনি। পরে সবজি নেব ভেবেছি। কিন্তু দেখি মাংসের তুলনায় সবজির দাম বেশি। এককেজি মুরগি ১৩৫ টাকা, মাছ ১৫০ টাকায় কিনেছি। সেখানে শিমের কেজি কিনতে হলো ১৬০ টাকায়। আর যে কিছু কিনব, টাকায় কুলোতে পারছি না।

অর্থনীতি বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর