ঢাকা, ২৩ মার্চ, ২০১৯ || ৯ চৈত্র ১৪২৫

পরীক্ষামূলক

LifeTv24 :: লাইফ টিভি 24
২০

‘রমজানের আগেই পণ্যের ন্যায্যমূল্য নিশ্চিত হবে’

প্রকাশিত: ৯ মার্চ ২০১৯  


বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি বলেছেন, বাজারে প্রতিযোগিতা সৃষ্টির মাধ্যমে পণ্যের ন্যায্যমূল্য নিশ্চিত করা হবে। পণ্যের উপযুক্ত মূল্য নিশ্চিত করতে প্রতিযোগিতা কমিশন আইনের কঠোর প্রয়োগ এবং জনসচেতনতা বাড়াতে হবে।
শনিবার সিরডাপ মিলনায়তনেটেকসই অন্তর্ভুক্তিমূলক উন্নয়নে বাংলাদেশ প্রতিযোগিতা কমিশনের ভূমিকাশীর্ষক সেমিনারে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি কথা বলেন।
বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বাঙালির স্বাধিনতা এবং অর্থনৈতিক মুক্তির জন্য সংগ্রাম করেছেন। তিনি বাংলাদেশ স্বাধীন করে গেছেন। এখন তার কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশের মানুষের অধিকার প্রতিষ্ঠা এবং অর্থনৈতিক মুক্তির জন্য দিনরাত কাজ করছেন। দেশে দরিদ্র মানুষের সংখ্যা উল্লেখযোগ্য হারে কমেছে।
গুটিকয়েক মানুষের লাভের জন্য দেশ স্বাধীন করা হয়নি উল্লেখ করে তিনি বলেন, পণ্যের সঠিক মূল্য নিশ্চিত করতে সরকার সবকিছু করবে। সিন্ডিকেট করে পণ্যের অবৈধ মজুত গড়ে তুলে কৃত্রিম উপায়ে মূল্য বৃদ্ধির সুযোগ দেয়া হবে না। বাজারে পণ্যের চাহিদা সরবরাহ স্বাভাবিক রাখতে হবে। বাজারে সুষ্ঠু প্রতিযোগিতা নিশ্চিত করার জন্য সরকার প্রয়োজনীয় সবকিছু করবে।
টিপু মুন্শি বলেন, পবিত্র রমজান মাসের আগেই পণ্যের অবৈধ মজুত দাম বৃদ্ধির সুযোগ দেয়া হবে না। ব্যবসায় প্রতিযোগিতা না থাকলে সাধারণ মানুষ ক্ষতিগ্রস্থ হবে। মানুষের ক্ষতি হয় এমন কোনো কাজ করতে দেয়া হবে না। প্রতিযোগিতা সৃষ্টির মাধ্যমে পণ্যের ন্যায্যমূল্য নিশ্চিত করা সম্ভব। নিয়ন্ত্রণহীনভাবে জনগণের স্বার্থবিরোধী কাজ করতে দেয়া হবে না। ন্যায্যমূল্য নিশ্চিত করা গেলে দেশের মানুষ উন্নত মানের পণ্য প্রকৃত মূল্যে ক্রয় করার সুযোগ পাবেন।
বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশ এখন বিশ্বের মধ্যে ৪২তম বৃহৎ অর্থনীতির দেশ। বাংলাদেশ দ্রুত গতিতে এগিয়ে যাচ্ছে। দেশ ইতোমধ্যে নিম্ন আয়ের দেশ থেকে বেরিয়ে উন্নয়নশীল দেশে পরিণত হতে শুরু করেছে। আগামী ২০২৪ সালের মধ্যে বাংলাদেশ হবে পূর্ণাঙ্গ উন্নয়নশীল দেশ এবং ২০৪১ সালে হবে উন্নত দেশ। দেশের উন্নয়ন এখন দৃশ্যমান। দেশে-বিদেশে বাংলাদেশের উন্নয়নের প্রসংশা করা হচ্ছে। পিছিয়ে থাকার উপায় নেই। এগিয়ে যাবে দেশ।


এই বিভাগের আরো খবর