ঢাকা, ১৮ জুন শুক্রবার, ২০২১ || ৪ আষাঢ় ১৪২৮
good-food
৫৪

ইরান ইস্যুতে সৌদি আরবের অবস্থান বদল

লাইফ টিভি 24

প্রকাশিত: ১৭:৪৭ ১০ জুন ২০২১  

ইরানের ঘোর বিরোধী হিসেবে মধ্যপ্রাচ্যে বিশেষভাবে পরিচিত সৌদি আরব ও সংযুক্ত আরব আমিরাত। কিন্তু পারমাণবিক চুক্তির ইস্যুতে এখন তারা আগের অবস্থান থেকে সরে এসেছে। তারা ইরানের সঙ্গে সৃষ্ট উত্তেজনা নিরসনের চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। 

 

বাইডেন ক্ষমতায় আসার পর নিরাপত্তা ইস্যুতে ভবিষ্যত আলোচনার জন্য প্রস্তুতি চলছে। বিশ্ব শক্তিগুলো ২০১৫ সালে যুক্তরাষ্ট্রের তখনকার প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামার সময়ে ইরানের সঙ্গে করা পারমাণবিক চুক্তি পুনরুজ্জীবিত করার চেষ্টা করছে। এ জন্য তারা ইরানের সঙ্গে ভিয়েনায় সমঝোতা আলোচনা চালিয়ে যাচ্ছে। ২০১৫ সালে সম্পাদিত চুক্তিতে তেহরান তার পারমাণবিক কর্মসূচি সীমিত করতে রাজি হয়েছিল। বিনিময়ে তাদের বিরুদ্ধে আন্তর্জাতিক অবরোধ প্রত্যাহার করা হয়।

 

সৌদি বাদশাহর অন্যতম প্রভাবশালী যুবরাজ সালমান ইতোমধ্যে ইরানের সাথে পুনরায় কুটৈনিতক সম্পর্ক স্থাপনের জন্য একজনকে দায়িত্ব দিয়েছেন। ইরানের সাথে সম্পর্ক স্বাভাবিক করতে ইতোমধ্যে কয়েকদফা রুদ্ধদ্বার বৈঠকও হয়েছে দুদেশের। 

 

মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের নতুন প্রশাসন এই চুক্তিটি পুনরুজ্জীবিত করতে চায়। এর আগে চুক্তিটি থেকে ২০১৮ সালে যুক্তরাষ্ট্রকে বের করে আনেন তখনকার মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডনাল্ড ট্রাম্প। তবে ওয়াশিংটনের উপসাগরীয় মিত্ররা সবসময় বলে আসছে যে, এই চুক্তিটি যথার্থ ছিল না। একই সাথে সংযুক্ত আরব আমিরতাও ইরানের সাথে দ্বি-পাক্ষিক সম্পর্ক স্বাভাবিক করতে সবুজ সংকত দিয়েছে।