ঢাকা, ০৬ জুন শনিবার, ২০২০ || ২২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭
good-food
৮০৫

কোন্ দেশের কাছে কত পরমাণু বোমা রয়েছে

লাইফ টিভি 24

প্রকাশিত: ১৯:২০ ১৪ সেপ্টেম্বর ২০১৯  

প্রথমত একটা জিনিস বলে স্পষ্ট করে দেয়া দরকার, সরকারি নথিতে কোনও দেশের কাছে যতগুলো পারমাণবিক বোমা থাকার কথা উল্লেখ করা হয়, বাস্তবে দেখা যায়, তার চেয়ে বহুগুণ বেশিই বোমা মজুত রয়েছে। সেসব খবর গুপ্তচরদের মারফত পৌঁছে যায় শত্রু দেশগুলোর কাছে। এ প্রতিবেদনে দেখে নেয়া যাক, কোন দেশের কাছে কয়টি(বলা ভালো শত বা হাজার) পরমাণু বোমা সরকারিভাবে মজুত রয়েছে। বর্তমানে বিশ্বের ৯টি দেশের কাছে ১৬,৩০০ পারমাণবিক বোমা আছে। তবে এসব বোমার সংখ্যা কমানোর চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে।
রাশিয়ার কাছে সবচেয়ে বেশি:  স্টকহোম ইন্টারন্যাশনাল পিস রিসার্চ ইন্সটিটিউটের (সিপ্রি) তথ্য অনুসারে, রাশিয়ার কাছে বর্তমানে সবচেয়ে বেশি পারমাণবিক বোমা রয়েছে। সেদেশে বোমার সংখ্যা সাড়ে ৭ হাজারের বেশি। ১৯৪৯ সালে সেখানে প্রথম পারমাণবিক পরীক্ষা হয়েছিল।
দ্বিতীয় স্থানে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র:  মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রই প্রথম পারমাণবিক বোমা বানিয়েছিল এবং একমাত্র দেশ যারা এটা যুদ্ধে ব্যবহারও করেছে। দেশটির এখন ৭ হাজারের বেশি পারমাণবিক বোমা রয়েছে।
সাবমেরিনে পারমাণবিক বোমার প্রযুক্তি রয়েছে ফ্রান্সের: ফ্রান্সের কাছে নিউক্লিয়ার ওয়ারহেড আছে ৩০০’র মতো। এগুলোর অধিকাংশই রয়েছে সাবমেরিনে। দেশটির অন্তত একটি সাবমেরিন সবসময় পারমাণবিক বোমা নিয়ে টহল দেয়।
চীনও পিছিয়ে নেই: অনুমান, ২৫০’র মতো পারমাণবিক বোমা আছে চীনের কাছে। রাশিয়া বা মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের তুলনায় সংখ্যাটা কম হলেও দেশটি ধীরে ধীরে এ সংখ্যা বাড়াচ্ছে। স্থল, আকাশ বা সমুদ্রপথে বোমা ছোঁড়ার প্রযুক্তি রয়েছে দেশটির হাতে।
ব্রিটেনের কাছেও রয়েছে পারমাণবিক বোমা: ২০০’র বেশি পারমাণবিক বোমা রয়েছে ব্রিটেনের কাছে। জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদের স্থায়ী সদস্য দেশটি ১৯৫২ সালে প্রথম পারমাণবিক পরীক্ষা চালায়।
থেমে নেই ভারতও: ভারত প্রথম পারমাণবিক পরীক্ষা চালায় ১৯৭৪ সালে। দেশে এখন ৯০টির বেশি পারমাণবিক বোমা রয়েছে। ভারত অবশ্য জানিয়ে রেখেছে, তারা আগে কোনও দেশকে আঘাত করবে না। আর যেসব দেশের পারমাণবিক বোমা নেই, সেসব দেশের বিরুদ্ধে ভারতীয় সেনা এ ধরনের বোমা ব্যবহার করবে না কোনও দিন।
পাকিস্তানের কাছে আদৌ রয়েছে কি: ইতিমধ্যে ৩ বার প্রতিবেশি দেশ ভারতের সঙ্গে যুদ্ধে জড়িয়েছে পাকিস্তান। তাদের কাছে শতাধিক পারমাণবিক বোমা থাকার দাবি করলেও আদতে সংখ্যাটা জানা নেই কারও। সাম্প্রতিক সময়ে পারমাণবিক বোমার সংখ্যা বাড়িয়েছে দেশটি। অনেকে আশঙ্কা করেন, ভারতের সঙ্গে পাকিস্তানের লড়াই যেকোনও সময় পারমাণবিক যুদ্ধের রূপ নিতে পারে।
ইজরায়েলের পরমাণু বোমা নিয়ে ধোঁয়াশা: ইজরায়েল অবশ্য তাদের পরমাণু কর্মসূচি সম্পর্কে তেমন তথ্য জনসমক্ষে প্রকাশ করে না। দেশটিতে ৮০টির মতো নিউক্লিয়ার ‘ওয়ারহেড’ আছে বলে ধারণা করা হয়।
উত্তর কোরিয়া সবার নিচে:  এখন পর্যন্ত প্রকাশিত তথ্য অনুযায়ী, উত্তর কোরিয়ার কাছে ১০টিরও কম পারমাণবিক বোমা রয়েছে। তবে তাদের নিজেদের এ ধরনের বোমা তৈরির সক্ষমতা রয়েছে কি না, তা নিশ্চিত নয়।

বিশ্ব বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর