ঢাকা, ২২ মে বুধবার, ২০২৪ || ৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১
good-food
২০৩

থাইল্যান্ড নির্বাচন: বামদলের জয়জয়কার সেনা শাসনের বিদায়!

লাইফ টিভি 24

প্রকাশিত: ১৫:২২ ১৫ মে ২০২৩  

থাইল্যান্ডে রবিবারের অনুষ্ঠিত নির্বাচনের ফলাফলে সেনা সমর্থিত দলগুলোকে পেছনে ফেলে বড় ব্যবধানে এগিয়ে বিরোধীদল প্রগ্রেসিভ মুভ ফরোয়ার্ড পার্টি (এমএফপি) এবং ফেউ থাই পার্টি। ৯৯ শতাংশ ভোট গণনা শেষে দেখা গেছে, সামরিক সমর্থিত দলগুলোর চেয়ে বামপন্থি দলগুলো এগিয়ে আছে। 

 

প্রাথমিক ফলাফলে দেখা গেছে, প্রগ্রেসিভ মুভ ফরোয়ার্ড পার্টি পেয়েছে ১৫১টি আসন। অন্যদিকে ১৪১ আসন নিয়ে দ্বিতীয় অবস্থানে ফেউ থাই। এর আগে নির্বাচন কমিশন জানিয়েছিল, ৫০০ আসনের মধ্যে ২৮৬টিতেই জয় পেতে পারে এই দুই দল। পার্লামেন্টের নিম্নকক্ষের ৫০০ সদস্য নির্বাচনে ভোট দিয়েছেন প্রায় ৫০ লাখ ভোটার। ৯৫ হাজার ভোটকেন্দ্রে নেওয়া হয় ভোট। এই ফলাফলের মধ্য দিয়ে দেশটির সেনা সমর্থিত সরকারের অবসান ঘটতে যাচ্ছে বলে ধারণা করা হচ্ছে। 


ফেউ থাইয়ের নেতা পায়েতোংতার্ন সিনাওয়াত্রা মুভ ফরোয়ার্ডকে অভিনন্দন জানিয়ে বলেন, আমরা মুভ ফরোয়ার্ডের সঙ্গে আলোচনায় প্রস্তুত।  আনুষ্ঠানিক ফল ঘোষণার জন্য অপেক্ষা করছি। আমরা বিশ্বাস করি থাইল্যান্ডে ভালো কিছু সম্ভব। 

 

নির্বাচনের  আনুষ্ঠানিকভাবে ফল ঘোষণা হতে কিছুদিন সময় লাগবে।  প্রধানমন্ত্রী নির্বাচিত হন পার্লামেন্টের জয়েন্ট সেশনে। সেখানে ২৫০ আসনের সেনেট আছে। এই সেনেট বর্তমান সেনা শাসকদলের হাতে।  নতুন প্রধানমন্ত্রী কে হবেন, তা অনেকটাই নির্ভর করবে সেনেটের হাতে।


গত এক দশক যাবত সেনা অভ্যুত্থান দেখেছে থাইল্যান্ড। দেশের সংবিধান বদলে ফেলা হয়েছে। এই পরিস্থিতিতে ২০২০ সাল থেকে দেশজুড়ে ব্যাপক ছাত্র আন্দোলন শুরু হয় যা সেনাদল কঠোর ভাবে মোকাবিলা করে। 

বিশ্ব বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর