ঢাকা, ২৮ সেপ্টেম্বর বুধবার, ২০২২ || ১৩ আশ্বিন ১৪২৯
good-food
১১৩

ইমরানের ইয়র্কারে বোল্ড হয়েছিলেন যেসব ভারতীয় নায়িকা

লাইফ টিভি 24

প্রকাশিত: ২৩:৫৫ ১৩ এপ্রিল ২০২২  

সদ্য পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রীর চেয়ার হারিয়েছেন। পরিচয়ের সঙ্গে জুড়ে গিয়েছে ‘সাবেক’ শব্দটি। আপাতত ইমরান খানের প্রায় প্রতিটি রাজনৈতিক পদক্ষেপই আতশকাচের তলায়।

 

রাজনীতিক ইমরানের ব্যক্তিজীবন নিয়েও কম উৎসাহ নেই তার অনুরাগীদের। আলো পড়েছে অতীত জীবনের একাধিক ‘প্রেমের সম্পর্কে’র ওপরেও। তেমনই একটি সম্পর্ক নাকি গড়ে উঠেছিল বলিউড সুন্দরী রেখার সঙ্গে। তা নাকি প্রায় বিয়ে পর্যন্ত গড়িয়েছিল!

 

পাকিস্তানের সদ্য সাবেক প্রধানমন্ত্রীর পরিচয়ের সঙ্গে জু়ড়ে রয়েছে ক্রিকেট। জুড়ে রয়েছে তার ক্রিকেটীয় জীবনকালের ‘প্লেবয়’ ভাবমূর্তিও। বলিউডের একাধিক নায়িকার সঙ্গে ইমরানের প্রেমের গুঞ্জন আজও তাজা। তবে আজকাল রেখার সঙ্গে তার ‘সম্পর্ক’ নিয়েই মজে নেটমাধ্যম।

 

ইমরানের ইনসুইং ইয়র্কারের ভক্ত নন, এমন ক্রিকেট অনুরাগী কমই রয়েছেন। নারী মহলেও তার অনুরাগীর সংখ্যা কম নয়। তাদের মধ্যে রয়েছেন বলিউডের বহু নায়িকা। ওই নায়িকাদের কয়েকজনের সঙ্গে চুটিয়ে ‘প্রেম’ করেছেন ইমরান।

 

এককালে বলিপাড়ায় মুনমুন সেনের সঙ্গে ইমরান খানের সঙ্গে ‘প্রেমের সম্পর্ক’ নিয়ে কম গুঞ্জন হয়নি। সেসময় অনেকেই বলতেন, মুনমুনকে দারুণ পছন্দ ইমরানের। যদিও এ নিয়ে দু’জনে প্রকাশ্যে কিছু বলেননি। ফলে জল্পনা বেড়েছে বই কমেনি!

 

শাবানা আজমির সঙ্গেও ইমরানের ঘনিষ্ঠতা নিয়ে জল্পনায় মেতেছিল বলিপাড়া। সত্যিটা কী? জল্পনাকে উড়িয়ে দেওয়ার মতো কোনও মন্তব্য করেননি শাবানা। একই পথের পথিক ছিলেন ইমরানও। ফলে আজও তা রহস্য থেকে গেছে।

 

সত্তরের দশকের ‘বোল্ড’ নায়িকা হিসেবে প্রথমসারিতে ছিলেন জিনাত আমান। সেই জিনাতের সঙ্গে ইমরানের ‘প্রেম’ নিয়েও জোর আলোচনা হতো বলিপাড়ায়। পাকিস্তান ক্রিকেটের অন্যতম সুদর্শন ক্রিকেটার নাকি জিনাতের সঙ্গে ডেটিং করেছেন বলে দাবি।

 

১৯৭৯ সালের নভেম্বরে ভারত সফরে এসেছিল পাকিস্তান ক্রিকেট দল। তবে ভারত-পাক টেস্ট ক্রিকেটের মাঝেই জায়গা করে নিয়েছিল জিনাত-ইমরান ‘সম্পর্ক’। অনেকের দাবি, ওই বছরই ইমরানের সঙ্গে ‘প্লেবয়’ শব্দটি জুড়ে গিয়েছিল।

 

’৭৯-এ তখনকার বেঙ্গালুরুর ক্রিকেট স্টেডিয়ামের সাজঘরে নিজের ২৭তম জন্মদিন পালন করেন ইমরান। সঙ্গে ছিলেন পাক দলের সতীর্থরা। তবে বহু ভারতীয় সংবাদমাধ্যমের দাবি, ওই বছরের জন্মদিনটি জিনাতের সঙ্গে উদ্‌যাপন করেন ইমরান। যদিও তা নিয়ে মুখ বন্ধ রেখেছিলেন দুজনেই।

 

তবে মুনমুন বা জিনাতের পাশাপাশি ইমরানের সঙ্গে রেখারও নাম জড়িয়েছিল। আজকাল সেই ‘পুরোনো সম্পর্ক’ ঘিরে প্রকাশিত একটি প্রতিবেদনই ঘোরাঘুরি করেছে নেটমাধ্যমে। স্টার নামে একটি সংবাদপত্রের শিরোনাম ছিল, ‘রেখার সঙ্গে বিয়ে করছেন ইমরান?’ একে ‘নিখুঁত ইয়র্কায়’-এর তকমাও দিয়েছিল স্টার।

 

ওই সংবাদপত্রের প্রতিবেদনে আরও দাবি, ১৯৮৫ সালের এপ্রিলের প্রায় পুরোটাই মুম্বাইয়ে কাটিয়েছিলেন ইমরান। সঙ্গী ছিলেন রেখা।

 

রেখার সঙ্গে সমুদ্রের ধারে, ব্যক্তিগত পার্টিতে বা নৈশক্লাবের মতো নানা জায়গায় ঘোরাঘুরি করতে দেখা গেছে ইমরানকে। দুজনে যে প্রেমে হাবুডুবু খাচ্ছেন, তা তাদের ঘনিষ্ঠতা থেকে স্পষ্ট। এমনই দাবি ছিল প্রত্যক্ষদর্শীদের।

 

জল্পনার ঢেউ শুধু ‘প্রেমের সম্পর্কে’ই থিতিয়ে পড়েনি। তা গড়িয়েছিল প্রায় বিয়ে পর্যন্ত। হ্যাঁ! রেখার সঙ্গেই নাকি বিয়ের কথাবার্তা শুরু হয়েছিল ইমরানের। ওই সংবাদপত্রে দাবি, এ নিয়ে রেখার মা পুষ্পাবলীরও আপত্তি ছিল না। ইমরানই যে তার মেয়ের সেরা সঙ্গী হতে পারেন, তেমনই নাকি মনে করতেন পুষ্পাবলী।

 

শেষমেশ রেখার সঙ্গে ‘সম্পর্ক’ বিয়ে পর্যন্ত গড়াল না কেন? ওই রিপোর্টের দাবি, অভিনেত্রীদের সঙ্গে ঘোরাঘুরি করলেও তাকে বিয়ের কখা ভাবতেও পারতেন না ইমরান। এই বক্তব্যের সমর্থনে ইমরানের একটি মন্তব্যও প্রকাশ করেছিল তারা।

 

ইমরান বলেছিলেন, ‘‘কিছুকালের জন্য সঙ্গী হিসেবে অভিনেত্রীরা মন্দ নয়। তবে কিছুদিনের জন্য তাদের সঙ্গ পছন্দ করলেও আমি তা ছেড়ে বেরিয়ে যেতাম। একজন অভিনেত্রীকে বিয়ে করার কথা ভাবতেও পারি না।’’