ঢাকা, ২৪ জুন সোমবার, ২০২৪ || ১১ আষাঢ় ১৪৩১
good-food
২৯৭

চ্যাটজিপিটি ব্যবহারকারীদের আলাপ ফাঁস!

লাইফ টিভি 24

প্রকাশিত: ১৯:১০ ২৩ মার্চ ২০২৩  

ক্রমেই জনপ্রিয় হচ্ছে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম চ্যাটবট চ্যাটজিপিটি’। কিন্তু এরই মধ্যে দু:সংবাদ। এক অভ্যন্তরীণ ত্রুটির ফলে ব্যবহারকারীদের একটি অংশ অন্যান্য ব্যবহারকারীর কথোপকথনের শিরোনাম দেখার সুযোগ পেয়েছেন। 

 

বিষয়টি জানিয়েছেন চ্যাটবটের নির্মাতা কোম্পানি ওপেনএআই’র প্রধান নিজেই।

 

এর আগে সামাজিক সাইট রেডিট ও টুইটারে কয়েকজন ব্যবহারকারী বিভিন্ন এমন ‘চ্যাটিং হিস্টরি’র ছবি পোস্ট করেন, যেগুলো নিজেদের নয় বলে দাবি করছেন তারা।

 

ওপেনএআই’র সিইও স্যাম অল্টম্যান বলেন, এতে ‘কোম্পানির খুবই খারাপ লেগেছে’। তবে, ‘উল্লেখযোগ্য এই ত্রুটির’ সমাধান হয়েছে।

 

এদিকে, প্ল্যাটফর্মের বেশ কিছু ব্যবহারকারী নিজেদের প্রাইভেসি নিয়ে শঙ্কিত থাকেন বলে প্রতিবেদনে উল্লেখ করেছে বিবিসি।

 

গত বছরের নভেম্বরে চ্যাটজিপিটি চালুর পর থেকে কোটি কোটি ব্যবহারকারী বিভিন্ন খসড়া বার্তা, গান এমনকি কোড লেখার উদ্দেশ্যে এই চ্যাটবট ব্যবহার করেছেন।

 

চ্যাটবটের প্রতিটি কথোপকথনই সংরক্ষিত থাকে ব্যবহারকারীর ‘চ্যাট হিস্টরি’ বারে, যা পরবর্তীতে ফের দেখা যায়।


তবে সোমবার ব্যবহারকারীরা নিজেদের ‘হিস্টরি’তে বিভিন্ন এমন কথাবার্তা দেখতে পান, যা তাদের চ্যাটবটে আগে ছিল না।

 

এদিকে, নিজের চ্যাট হিস্টরিতে ‘চাইনিজ সোশালিজম ডেভেলপমেন্ট’-এর মতো বিভিন্ন শিরোনাম থাকা একটি ছবি সামাজিক প্ল্যাটফর্ম রেডিটে শেয়ার করেন এক ব্যবহারকারী। এর পাশাপাশি, ম্যান্ডারিন ভাষার কথপোকথনও ছিল এতে।

 

গেল মঙ্গলবার কোম্পানিটি মার্কিন বাণিজ্য প্রকাশনা ব্লুমবার্গকে বলেছে, তারা এই সমস্যা সমাধানের উদ্যেশ্যে সোমবারের শেষ বেলায় অস্থায়ীভাবে চ্যাটবটটি নিষ্ক্রিয় করে দিয়েছে।

 

কোম্পানি আরও বলেছে, ব্যবহারকারীরা এর মূল চ্যাটিং ব্যবস্থায় প্রবেশ করতে পারেননি।

 

ওপেনএআই’র প্রধান নির্বাহী টুইট করেন, শীঘ্রই এই বিষয়ে ‘প্রযুক্তিগত ময়নাতদন্ত’ চালানো হবে।

 

তবে, এই ত্রুটির কারণে সেইসব ব্যবহারকারীর উদ্বেগ বেড়েছে, যারা ভয় পাচ্ছেন যে এই টুলের মাধ্যমে তাদের ব্যক্তিগত তথ্য ফাঁস হয়ে যেতে পারে।


এই ত্রুটি থেকে ইঙ্গিত মেলে, ব্যবহারকারীর চ্যাটিং ব্যবস্থায় ওপেনএআই’র প্রবেশাধিকার আছে।

 

কোম্পানির প্রাইভেসি নীতিমালায় অবশ্য উল্লেখ আছে, প্রম্পট বা প্রতিক্রিয়ার মতো ব্যবহারকারীর ডেটা, চ্যাটবট মডেলের প্রশিক্ষণ অব্যাহত রাখার উদ্দেশ্যে ব্যবহৃত হতে পারে।

 

তবে ওই ডেটা কেবল ব্যক্তিগতভাবে শনাক্তযোগ্য তথ্য মুছে ফেলার পরে ব্যবহার করা হয় বলে প্রতিবেদনে উল্লেখ করেছে বিবিসি।

 

এক দল বেটা পরীক্ষক ও সংবাদকর্মীর কাছে গুগলের নিজস্ব চ্যাটবট ‘বার্ড’ উন্মোচনের কেবল একদিন পর জনপ্রিয় এই চ্যাটবটে এমন ত্রুটি এলো।

 

কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা ব্যবস্থার ক্রমবর্ধমান বাজার নিয়ন্ত্রণের উদেশ্যে ‘আঁটসাঁট বেঁধে’ নেমেছে গুগল ও ওপেনএআই’র মূল বিনিয়োগকারী মাইক্রোসফট।

 

তবে নতুন পণ্যের আপডেট ও উন্মোচনের গতির কারণে অনেকের মধ্যেই এমন শঙ্কা তৈরি হয়েছে যে এই ধরনের পণ্য ক্ষতিকারক হতে পারে বা এতে অনিচ্ছাকৃত কোনো ফলাফল আসতে পারে।