ঢাকা, ১১ জুলাই শনিবার, ২০২০ || ২৭ আষাঢ় ১৪২৭
good-food
৬৮

নবজাতককে বুকের দুধ খাওয়ালেন নার্স

লাইফ টিভি 24

প্রকাশিত: ১৭:৪৫ ৩ জুন ২০২০  

কলকাতার লেকটাউনের বাসিন্দা উমা সরকারি আরজি কর হাসপাতালের নার্স। নার্স হওয়ায় করোনা আতঙ্কে লকডাউনের প্রথমদিকে উমা ও তার  গোটা পরিবারকে প্রতিবেশীদের হাতে হেনস্তা হতে হয়েছিল। কিছুদিন আগেই এক শিশুর জন্ম দিয়েছেন তিনি। তাই হাসপাতালে থেকে যাওয়া সম্ভব হয়নি ঘরে ছোট্ট শিশু থাকায়। কাজে যোগ দিয়েছেন লকডাউন শুরুর কয়েক দিন আগে। শেষ পর্যন্ত্ত থানায় অভিযোগ জানিয়ে পরিবারের সবার মেডিক্যাল স্ক্রিনিং করিয়ে তবে সেই সমস্যা থেকে মুক্তি পেয়েছিলেন। সেই নার্স উমাই এক সদ্যজাতকে নিজের বুকের দুধ খাইয়ে মানবিকতার নজির তৈরি করেছেন। উমার এই মানবিকতায় সহকর্মীরা তো বটেই, চিকিৎসকরাও  উচ্ছ্বসিত।
জানা গেছে,  বৃহস্পতিবার জন্ম নেয়া একটি শিশু দুধের জন্য প্রচণ্ড কান্নাকাটি করছিল। আসলে সি  সেকশন করে সন্তানের জন্ম দেয়া তার মায়ের পক্ষে তখনই তাকে দুধ খাওয়ানো সম্ভব ছিল না। এই রকম পরিস্থিতিতে হাসপাতালে সদ্য মা হওয়া অন্য প্রসূতিদের দিয়ে স্তন্যপান করানো হয়। কিন্তু করোনা সংক্রমণের ভয়ে অন্য কেউ শিশুটিকে দুধ খাওয়াতে এগিয়ে আসেননি। আর ঠিক তখনই কিছুদিন আগেই মা হওয়া নার্স উমা এগিয়ে এসে শিশুকে বুকের দুধ খাইয়ে শান্ত করেন। উমা জানিয়েছেন, দুধের জন্য শিশুটির কান্না দেখে ঠিক থাকতে পারিনি। করোনা-ভীতির থেকে তখন অনেক বড় হয়ে গিয়েছিল একফোঁটা দুধের জন্য সদ্যজাত শিশুর আকুতি। তিনি জানিয়েছেন, সব রকম সাবধানতা অবলম্বন করেই তিনি শিশুটিকে দুধ খাইয়েছেন। তার স্বামী এই ঘটনায় প্রথমে ভয় পেয়ে গেলেও তাকে আশ্বস্ত করেছেন উমা। আসলে করোনার লড়াইয়ের প্রথম সারিতে থাকা নার্স ও স্বাস্থ্যকর্মীদের কাছে মানবতাই যে সবার উপরে সেটাই প্রমাণ করেছেন উমা।  সেলফিতে ধরেও রেখেছেন অনন্য সেই মুহূর্তটিকে। হাসপাতাল সূত্রের খবর, ওই সদ্যজাত শিশু ও তার মা কারোরই করোনা ধরা পড়েনি।

সেলিব্রেটি বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর