ঢাকা, ২১ আগস্ট বুধবার, ২০১৯ || ৫ ভাদ্র ১৪২৬
LifeTv24 :: লাইফ টিভি 24
১৭৬

ভারতে বামদের ডাকা ধর্মঘটে ব্যাপক সাড়া

প্রকাশিত: ১৫:০১ ৮ জানুয়ারি ২০১৯  

ছবি সংগৃহীত

ছবি সংগৃহীত


 
শ্রমিকদের ন্যূনতম মজুরি ১৮,০০০ টাকা, কৃষকদের ফসলের লাভজনক দাম, বেকারদের কর্মসংস্থান সহ বারো দফা দাবিতে পাশের দেশ ভারতে বামদের ডাকা সাধারণ ধর্মঘট ঘিরে রাজ্য প্রায় অচল হয়ে গেছে।

জানা গেছে, জেলায় জেলায় ধর্মঘটের প্রভাব লক্ষ্য করা যাচ্ছে। প্রশাসনের হুমকিকে অগ্রাহ্য করে রাজ্যের বিভিন্ন অঞ্চলে বাম কর্মীরা সাধারণ ধর্মঘটের সমর্থনে রাস্তায় নেমেছে সকাল থেকেই।  

 কেন্দ্রীয় বিজেপি সরকারের বিরুদ্ধে ডাকা সাধারণ ধর্মঘটে কলকাতায় প্রশাসনের দায়িত্বে রাস্তায় কিছু যানবাহন চলাচল করলেও জনজীবন অচল হয়ে পরেছে। শহরের এলালায় এলাকায় বহু দোকানপাট বন্ধ। রাস্তায় লোক চলাচল অন্যান্য দিনের তুলনায় কম। সাধারণ ধর্মঘটের প্রথম দিনে ধর্মঘটের সমর্থনে রাস্তায় রাস্তায় বাম কর্মী সমর্থকদের উপস্থিতি চোখে পড়ার মত। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায় গত কয়েক বছরে বামদের এমন আন্দোলন চোখে পড়েনি তাদের। 

 কেন্দ্রীয় মোদী সরকারের জনবিরোধী নীতির বিরুদ্ধে ৮-৯ই জানুয়ারি দেশ জুড়ে সাধারণ ধর্মঘটের ডাক দিয়েছে বিভিন্ন বাম সমর্থিত ট্রেড ইউনিয়ন সংগঠনগুলো। দেশের প্রায় সমস্ত ব্যাংক ইউনিয়নগুলি বামদের ডাকা এই ধর্মঘটকে সমর্থন দিয়েছে।  

অন্যদিকে বামদের সমর্থন করেছে বিজেপির অন্যতম প্রতিদ্বন্দ্বী দল কংগ্রেসও। বিজেপি সরকারের বিরোধিতার কথা বললেও এই ধর্মঘট সমর্থন করেনি পশ্চিমবঙ্গের ক্ষমতাসীন তৃণমূল কংগ্রেস।

মঙ্গলবার সকাল থেকেই ধর্মঘট সফল করতে রাজ‍্যের বিভিন্ন জায়গায় পথে নেমেছে ধর্মঘটকারীরা। আরও জানা গেছে, যাদবপুর, শ্রীরামপুর, দূর্গাপুর, কল‍্যাণী, উত্তরপাড়া, কোন্নগর, মানকুন্ডূ, সাগরদিঘি, জিরাট সহ রাজ‍্যের বিভিন্ন স্টেশনে চলছে রেল অবরোধও। হাওড়া-কাটোয়া, হাওড়া-ব‍্যন্ডেল, শিয়ালদহ উঃ ওঃ দঃ শাখা, গেদে, রানাঘাট শাখায় ট্রেন চলাচল ব্যাহত হয়েছে। এদিকে এজন্য সাধারণ মানুষদের স্বাভাবিক চলাচল ব্যাহত হচ্ছে।

সকাল থেকেই কলকাতা সহ রাজ‍্যের বিভিন্ন জায়গায় রাস্তা ও রেল অবরোধ করে রাখে বাম সমর্থকরা। পিকেটিংও চলছে রাস্তার মোড়ে মোড়ে।

এদিকে  পিকেটিংইয়ের সময় মৌলালীতে CITU পশ্চিমবঙ্গ কমিটির সাধারণ সম্পাদক অনাদী সাহু সহ ১৬ জন বাম সমর্থকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। যাদবপুর ৮বি থেকে বন্ধ সমর্থনে মিছিল করার সময় গ্রেফতার করা হয় বাম পরিষদের দলনেতা ডাঃ সুজন চক্রবর্তীকে। এদিন রাজ্যের বিভিন্ন অঞ্চল থেকে সাধারণ ধর্মঘটের সমর্থনে মিছিল, অবরোধে অংশ নেওয়ায় কয়েকশো বাম কর্মী সমর্থককেও গ্রেপ্তার করা হয়।

দক্ষিণবঙ্গের পাশাপাশি উত্তরবঙ্গেও ধর্মঘটে ভালো সাড়া পাওয়া গেছে। জলপাইগুড়ি, আলিপুরদুয়ারের বেশিরভাগ দোকানপাটই বন্ধ রয়েছে। স্কুল-কলেজও বন্ধ রয়েছে। চা বাগানগুলিও বন্ধ।পর্যটকহীন ডুয়ার্সও।

মহারাষ্ট্রের  বিভিন্ন জেলায় ধর্মঘটকারীরা দফায় দফায় সমাবেশ করছে। ওড়িশাতে ধর্মঘটে ব্যাপক প্রভাব পড়েছে। দোকান, স্কুল-কলেজ বন্ধ। বাম শাসিত কেরালতেও ধর্মঘটে প্রভাব পড়েছে চোখে পড়ার মত।


এই বিভাগের আরো খবর