ঢাকা, ১৮ জুন শুক্রবার, ২০২১ || ৪ আষাঢ় ১৪২৮
good-food
১০৯

মাশরাফির বক্তব্য নিয়ে তোলপাড়

লাইফ টিভি 24

প্রকাশিত: ২১:০৪ ২০ মে ২০২১  

বাংলাদেশ জাতীয় ওয়ানডে ক্রিকেট দলের সাবেক অধিনায়ক মাশরাফির বিন মুর্তজার নেতৃত্ব নিয়ে ভারতের রাজনীতি অঙ্গনে জোরালো আলোচনা চলছে। কলকাতার আনন্দবাজার পত্রিকা উল্লেখ করেছে ভারতীয় নেটিজেনদের আর্জি, মাশরাফিকে দেখে যেন ভারতের নেতারা শিক্ষা নেন।


মাশরাফি কতটা জনপ্রিয় সেটা আমরা সবাই জানি। ক্রীড়াঙ্গনে তার জনপ্রিয়তা আকাশচুম্বি। ক্রীড়াঙ্গনের জনপ্রিয় এই ক্রিকেটার গত সংসদ নির্বাচনে নড়াইল-২ আসন থেকে সংসদ সদস্য হিসেবে নির্বাচিত হন। এর পরই এলাকাবাসীর যেকোনো সমস্যা সমাধানে সামনে থেকে নেতৃত্ব দিতে দেখা যায় তাকে।


সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়া মাশরাফির একটি ভিডিওতে দেখা যায়, বিক্ষোভকারী জনতাকে বুঝিয়ে-শুনিয়ে শান্ত করছেন তিনি। যা যেকোনো নেতার জন্যই বড় গুণ।


এলাকাবাসিদের উদ্দেশ্যে বলেছেন, আপনারা মারামারি করবেন না, হাজারটা অন্যায় কথা বলবেন চেষ্টা করবো মিলায় দিতে। আমার কথা হচ্ছে মারামারি করছেন তো খবর আছে। যেখানে মন্তব্যকারীরা মাশরাফিকে উপযুক্ত নেতা হিসেবে আখ্যায়িত করেছেন।


তিনি এলাকাবাসিদের উদ্দেশ্যে বলেন, আপনারা কাদের ইন্ধনে মারামারি করেন, তারা আপনাদের কী দেয়? খাইতে দেয়? পরতে দেয়? ধরেন আমার কথাই আপনারা শুনেন, আমি কী আপনাদের খাইতে দেই? ছেলে-মেয়েকে লেখা পড়াই করাই? তাহলে আমি কিসের নেতা?


এই সংসদ সদস্য বলেন, আমার কথায় একজনকে মাইরা ফালাইলে, কেস খেয়ে আপনার ছেলে-মেয়ে দেউলিয়া হয়ে যাবে। আপনি যে মামলাটা খাচ্ছেন, পুলিশের কাজ তো আপনাকে ধইরে নিয়েই যাবে, ওমক নেতা ঢাকায় বসে বলছে মেরে দিয়ে আয়, আপনি মেরে দিলেন। মারার পর যে আপনার কি হলো আপনি তো বুঝলেন না। সে কী আপনার মামলা লড়ে? জেল যা খাওয়ার তা তো আপনারাই খাটছেন নাকি? মাঝখান থেকে আপনার বাসার মহিলা ও বাচ্চারা সাফার করবে।

মাশরাফি বলেন, ঢাকায় বসে বা নড়াইল বসে আপনাদের বলবে মাইরা আয়, আর আপনারা ঝাঁপায় পড়তেছেন। আপনাদের সহজ-সরল পাইয়ে, ভাঙায় খেয়ে এই নেতারা শেষ করে দিবে। আপনারা গ্রামের মানুষ সহজ-সরল হন ভালো কথা, তাই বলে যে যা বলবে সেইভাবে লাফাই পড়বেন? এই যে কুপাকুপি করতেছেন, একদিন তো তাদেরকে আপনাদের লাগবে, আপনাদের তাদের লাগবে।


পরিশেষে বলেন, আর যদি মারামারি করেন আপনাদের ফোন ধরা বন্ধ। ওসি সাহেব পুলিশি আইনে যেটা বলে সেটা করবেন। কোন নেতার কথা শোনা আর হবে না। সাবেক এই অধিনায়কের এসব কথা শোনে এলাকাবাসিরা স্বত:স্ফুর্থে বলে উঠেন আমরা আর মারামারি করবো না। পরে স্থানীয়রা উল্লাস করে মাশরাফিকে ধন্যবাদ জানান।


ম্যাশের এমন বক্তব্য ভারতীয়দের মনেও সাড়া ফেলেছে। ভারতীয় অনেকেই বলেছেন, মাশরাফির নেতৃত্বগুণ দেখে ভারতীয়দেরও শিখা উচিত।