ঢাকা, ১০ এপ্রিল শুক্রবার, ২০২০ || ২৬ চৈত্র ১৪২৬
good-food
৪৫

সেই পরকীয়া নিয়ে মুখ খুললেন বিল ক্লিনটন

লাইফ টিভি 24

প্রকাশিত: ২১:১৯ ৬ মার্চ ২০২০  

কাজের চাপ, উদ্বেগ কাটাতেই হোয়াইট হাউস ইন্টার্ন মনিকা লিউইনস্কির সঙ্গে বিবাহ বহির্ভূত সম্পর্কে জড়িয়ে পড়েছিলেন। কী পরিস্থিতিতে তিনি এ সম্পর্কে জড়িয়ে পড়েন, তাও নাকি পরে স্ত্রীকে খোলাখুলি জানিয়েছিলেন। এমনটাই জানালেন আমেরিকার সাবেক প্রেসিডেন্ট বিল ক্লিনটন। মার্কিন টেলিভিশন নেটওয়ার্ক‘হুলু’কে দেয়া সাক্ষাত্কারে এ কথা জানিয়েছেন তিনি।
দুই দফায় ১৯৯৩ সাল থেকে ২০০১ পর্যন্ত প্রেসিডেন্ট পদে ছিলেন ক্লিনটন। তিনি ছিলেন ৪২তম মার্কিন প্রেসিডেন্ট। ১৯৯৮ সালে ক্লিনটনের সঙ্গে সম্পর্ক নিয়ে প্রকাশ্যে মুখ খোলেন মনিকা। এর পরই তার বিরুদ্ধে ইমপিচমেন্ট আনা হয়। যদিও মার্কিন সেনেট তাকে অভিযোগ থেকে মুক্তি দেয়। পরে প্রেসিডেন্ট পদে বহাল থাকেন ক্লিনটন। কিন্তু লিউইনস্কির সঙ্গে তার সম্পর্ক নিয়ে বিশ্বজুড়ে আলোড়ন তৈরি হয়। 
কীভাবে সামলেছিলেন নিজের সংসার সেই কথাই জানিয়েছেন ক্লিনটন। ‘হিলারি’ নামের এ সিরিজে তিনি বলেন,  প্রত্যেকের জীবনেই চাপ, হতাশা, ভয়, আতঙ্ক থাকে, আমার জীবনেও ছিল। তবে সেই চাপ, উদ্বেগ কাটাতে আমি যা করেছিলাম তা মোটেই ঠিক ছিল না, এটা একটা বোকা কাজ ছিল। এটা কোনও সাফাই নয়, ব্যাখ্যা।
১৯৯৮ সালে মনিকার সঙ্গে ক্লিনটনের সম্পর্কের কথা প্রকাশ্যে আসে। তাদের মধ্যে ১৯৯৫ থেকে ১৯৯৭ সাল পর্যন্ত সম্পর্ক ছিল। ঘটনা প্রকাশ্যে আসার পরেও বারবার স্ত্রীকে মিথ্যা বলেন বলে জানিয়েছেন ক্লিনটন। কিন্তু এক দিন গোটা ঘটনা স্ত্রীর কাছে স্বীকার করেন। কেমন ছিল স্ত্রীর কাছে তার সেই স্বীকারোক্তি তাও জানিয়েছেন। 
ক্লিনটন জানিয়েছেন, একদিন রাতে তিনি বিছানায় স্ত্রীর পাশে বসেন, কথা বলেন। মনিকার সঙ্গে কবে, কোথায় কী কী ঘটেছিল, সব সত্যি বলেন। স্ত্রীকে গোটা ঘটনা বলার সময় তার মানসিক অবস্থা কেমন হয়েছিল তাও বলেন ক্যামেরার সামনে।
হিলারি পরে জানান, তিনি মানসিকভাবে বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছিলেন। বিশ্বাসই করতে পারছিলেন না তার স্বামী তাকে দিনের পর দিন মিথ্যা কথা বলে গিয়েছেন। তবে টানাপড়েনের মধ্যে দিয়ে গেলেও তাদের বিয়ে টিকে যায়। 
ক্লিনটন জানিয়েছেন, স্ত্রীর সঙ্গে সম্পর্ক পুনরুদ্ধার করতে তারা কাউন্সেলিং করান। এটা একটা কঠিন সিদ্ধান্ত ছিল। কিন্তু জরুরি ছিল।
ক্লিনটন আরও বলেন, তিনি যখন দেখেন মনিকা গোটা বিষয়টি ভুলভাবে ব্যাখ্যা করছেন, তখন খুব খারাপ লেগেছিল তার। কিন্তু এ-ও দেখছেন, ওই সময়ে মনিকা কীভাবে নিজে স্বাভাবিক জীবন ফিরে পাওয়ার লড়াই করছিলন।