ঢাকা, ২৫ ফেব্রুয়ারি মঙ্গলবার, ২০২০ || ১২ ফাল্গুন ১৪২৬
good-food
১৭১

ঈদের দিন হতে পারে বৃষ্টি

লাইফ টিভি 24

প্রকাশিত: ২১:৩২ ৭ আগস্ট ২০১৯  

১২ আগস্ট সোমবার  ঈদুল আজহা। এর আগে মাঝে মধ্যে কাঁদছে প্রকৃতি। দেশের কোনো কোনো স্থানে হুট করে বৃষ্টি হচ্ছে। ঈদের দিনেও তা হতে পারে।
আবহাওয়া অফিস জানিয়েছে, বঙ্গোপসাগরে নিম্নচাপ বিরাজ করছে। এর প্রভাবে সাগর উত্তাল। ফলে প্রচুর মেঘমালা সৃষ্টি হচ্ছে, ঝরছে বৃষ্টি। চট্টগ্রাম, মোংলা ও পায়রা সমুদ্রবন্দর এবং কক্সবাজার উপকূলীয় এলাকাকে ৩ নম্বর সতর্ক সংকেত দেখানো হয়েছে। এ অবস্থা আরো এক সপ্তাহ থাকতে পারে। সেরকম হলে ঈদের দিনও বৃষ্টি হবে।
আবহাওয়াবিদ আফতাবউদ্দিন বলেন, উত্তর বঙ্গোপসাগর, বাংলাদেশ ও পশ্চিমবঙ্গ উপকূলীয় এলাকায় অবস্থান করা  নিম্নচাপ ভারি আকারে ভারতের ওড়িশ্যা উপকূলের দিকে এগিয়েছে। বুধবার বিকেলের পর সেটি সেই স্থান পেরিয়ে যাবে। তবে নিম্নচাপটি সাইক্লোনে রূপ নেয়ার শঙ্কা নেই।কিন্তু এর প্রভাবে এদিন ও বৃহস্পতিবার খুলনা, বরিশালের উপকূলীয় অঞ্চলে বৃষ্টি হবে। শুক্রবার বৃষ্টির মাত্রা কমে আসবে। শনিবার থেকে আবার শুরু হতে পারে। মঙ্গলবার পর্যন্ত দেশের বিভিন্ন স্থানে হালকা থেকে মাঝারি মাত্রার বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে।
আবহাওয়া অফিসের বিশেষ বুলেটিনে জানানো হয়, নিম্নচাপের প্রভাবে দেশের উপকূলীয় এলাকার ওপর দিয়ে ঝড়ো হাওয়া বয়ে যেতে পারে। মৌসুমি গভীর নিম্নচাপ কেন্দ্রের ৪৮ কিলোমিটারের মধ্যে বাতাসের একটানা সর্বোচ্চ গতিবেগ ঘণ্টায় ৫০ কিলোমিটার। এটি দমকা অথবা ঝড়ো হাওয়ার আকারে ৬০ কিলোমিটার পর্যন্ত বৃদ্ধি পাচ্ছে। মৌসুমি গভীর নিম্নচাপ কেন্দ্রের নিকটবর্তী এলাকায় সাগর অনেকটাই উত্তাল। এর প্রভাবে উপকূলীয় জেলা চট্টগ্রাম, কক্সবাজার, নোয়াখালী, লক্ষ্মীপুর, ফেনী, চাঁদপুর, বরগুনা, পটুয়াখালী, ভোলা, বরিশাল, পিরোজপুর, ঝালকাঠি, বাগেরহাট, খুলনা, সাতক্ষীরা এবং আশপাশের দূরবর্তী দ্বীপ ও চরগুলোর নিম্নাঞ্চল স্বাভাবিক জোয়ারের চেয়ে ১ থেকে ২ ফুট উঁচু জলোচ্ছ্বাসে ডুবে যেতে পারে। এজন্য উত্তর বঙ্গোপসাগরে অবস্থান করা মাছ ধরার নৌযানগুলোকে পরবর্তী নির্দেশ না দেয়া পর্যন্ত উপকূলের কাছাকাছি সাবধানে চলাচল করতে বলা হয়েছে।