ঢাকা, ১০ এপ্রিল শুক্রবার, ২০২০ || ২৬ চৈত্র ১৪২৬
good-food
১১৫

করোনা ভাইরাস: এবার ওমরাহ বন্ধ করে দিল সৌদি আরব

লাইফ টিভি 24

প্রকাশিত: ১৬:৩৮ ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২০  

ওমরাহ ভিসার জন্য আবেদন গ্রহণ বন্ধ করে দিয়েছে কর্তৃপক্ষ। দেশটির সরকারি সংবাদ মাধ্যম সৌদি গেজেটের এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানানো হয়েছে। গত সোমবার থেকে ভিসার জন্য আবেদন বন্ধ রাখা হয়েছে। তবে সৌদি আরবের হজ ও ওমরাহ বিষয়ক জাতীয় কমিটির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ বিন বদি জানিয়েছেন আরবি জ্বিলহাজ মাসের ১৫ অর্থাৎ আগামী ১৫ আগস্ট থেকে পুনরায় এই ভিসা দেয়া হবে।
কাতার ভিত্তিক সংবাদ মাধ্যম গালফ নিউজ জানায়, চীনের প্রাণঘাতি করোনাভাইরাস  (কভিড-১৯) বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে পড়ায় হজ ও ওমরাহ ভিসা সাময়িক ভাবে বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত হয়েছে সৌদি সরকার। প্রতিবেদনে জানায়, সাময়িক সময়ের জন্য করোনার প্রাদুর্ভাব অঞ্চলের লোকজনদের ভিসা দিবে না সৌদি আরব।

সৌদি প্রেস এজেন্সি জানিয়েছে, স্বাস্থ্য কর্তৃপক্ষের মানদণ্ডের ভিত্তিতে যেসব দেশে ভাইরাসের সংক্রমণ বিপদ অবস্থায় রয়েছে এমন দেশ থেকে আগতদের প্রবেশ স্থগিত করা হয়েছে।

 মোহাম্মদ বিন বদি জানান, আবেদন পড়ার ৫ দিনের মধ্যে ওমরাহ ভিসা প্রদান করা হবে। তবে এই ভিসার মেয়াদ কোনোভাবেই এক মাসের বেশি অতিক্রম করবে না।
এদিকে সৌদি আরবে প্রবেশে নিষেধাজ্ঞার কারণে ভিসা হওয়া পরও বাংলাদেশের প্রায় ১০ হাজার ওমরাহ যাত্রী আটকে গেলেন। বৃহস্পতিবার রাজধানীর নয়াপল্টনে একটি হোটেলে ‘বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় হজ প্যাকেজ-২০২০’ ঘোষণা সংবাদ সম্মেলনে  (হাব) সভাপতি এম শাহাদাত হোসাইন তসলিম এ তথ্য জানান।

তিনি বলেন, ‘আজকে ২৭ তারিখে সৌদি পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকে একটি নোটিশ জারি করা হয়েছে। সেখানে বলা হয়েছে পৃথিবীর সব দেশের ওমরাহ ভিসা ইস্যু স্থগিত করা হয়েছে। পাশাপাশি ভিজিট ভিসাও। ওমরাহ যাত্রীদের সৌদি আরবে প্রবেশ নিষিদ্ধ করার কথা বলা হয়েছে।’

চলতি বছরে রেকর্ড পরিমাণ ৭৬ লাখ ৫০ হাজার ৭৩৬ জনকে ওমরাহ ভিসা প্রদান করেছে সৌদি আরব। মন্ত্রণালয়ের দেয়া তথ্য অনুযায়ী, ওমরাহ ভিসা পাওয়া ৭৩ লাখ ৯৩ হাজার ৬৫৭ জন হাজি ইতোমধ্যে সৌদি পৌঁছেছেন।

ওমরাহ হজ পালন করতে যেসব হাজি সৌদি পৌঁছেছেন তাদের মধ্যে ৬৫ লাখ ৫০ হাজার ৫২০ জন আকাশ পথে দেশটিতে প্রবেশ করেন। বাকিদের মধ্যে ৭ লাখ ৭ হাজার ৯৫৫ জন স্থলপথে এবং ১ লাখ ৩৫ হাজার ১৮২ জন সমুদ্রপথে সৌদিতে প্রবেশ করেন।

করোনাভাইরাসের জন্য সৌদি আরবে প্রবেশে নিষেধাজ্ঞার কারণে ভিসা হওয়া পরও বাংলাদেশের প্রায় ১০ হাজার ওমরাহ যাত্রী আটকে গেলেন। বৃহস্পতিবার রাজধানীর নয়াপল্টনে একটি হোটেলে ‘বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় হজ প্যাকেজ-২০২০’ ঘোষণা সংবাদ সম্মেলনে  (হাব) সভাপতি এম শাহাদাত হোসাইন তসলিম এ তথ্য জানান।