ঢাকা, ০৩ জুন বুধবার, ২০২০ || ১৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭
good-food
২৭৩

রমজানে ২০ হাজার যাত্রী ওমরাহ পালন করতে পারবেন না!

লাইফ টিভি 24

প্রকাশিত: ১৬:৫৯ ১১ মে ২০১৯  

মধ্যস্বত্বভোগীরাই হজযাত্রীদের বিড়ম্বনায় পড়ার প্রধান কারণ উল্ল্যেখ করে হজ এজেন্সি অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (হাব) তাদের কাছে টাকা না দেয়ার আহ্বান জানিয়েছে।

শনিবার দুপুরে রাজধানীর একটি হোটেলে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে হাবের সভাপতি এম শাহাদাত হোসাইন তসলিম এ আহ্বান জানান।

তিনি বলেন, হজযাত্রীদের বিড়ম্বনায় পড়ার প্রধান কারণ মধ্যস্বত্বভোগী। দয়া করে দালালদের কাছে টাকা দেবেন না। শুধু সরকার অনুমোদিত হজ এজেন্সিগুলোর সঙ্গে চুক্তিবদ্ধ হবেন। এরপর কেউ কোনো বিড়ম্বনায় পড়লে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

সেখানে বাংলাদেশের ওমরাহ যাত্রী ও মধ্যপ্রাচ্যগামী অভিবাসীদের ফ্লাইটে তীব্র আসন সংকট এবং দ্বিগুণ ভাড়া বৃদ্ধির কথা তুলে ধরেন হাব সভাপতি। এম শাহাদাত হোসাইন তসলিম বলেন, বাংলাদেশ থেকে প্রতি বছর লক্ষাধিক ওমরাহ যাত্রী সৌদি আরবে যান। এখন সারাবছর তা পালনের সুযোগ আছে। কিন্তু এয়ারলাইন্সগুলোতে আসন সংকট তীব্র আকার ধারণ করেছে।

তিনি বলেন, এ সুযোগে সেগুলো ফ্লাইটের ভাড়া অসহনীয় মাত্রায় বৃদ্ধি করেছে। তবুও  ফ্লাইট পাওয়া যাচ্ছে না। এ অবস্থা চলতে থাকলে এ বছর কমপক্ষে ২০ হাজার যাত্রী ভিসা সংগ্রহ ও হোটেল বুকিং করার পরও রমজানে ওমরাহ পলন করতে পারবেন না।

সংকট সমাধানে হাবের পক্ষ থেকে দু’টি প্রস্তাব তুলে ধরা হয়। এর একটি বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের যেসব রুটে যাত্রী সংখ্যা কম ও অলাভজনক অবস্থা, সেসব রুটের ফ্লাইট কমিয়ে ঢাকা-জেদ্দা-ঢাকা, ঢাকা-রিয়াদ-ঢাকাসহ মধ্যপ্রাচ্যগামী অন্যান্য রুটে ফ্লাইট সংখ্যা বৃদ্ধি করা।

আরেকটি বিদেশি এয়ারলাইন্সগুলোকে বাংলাদেশে ফ্লাইট পরিচালনার সহজ সুযোগ দেয়ার জন্য ওপেন স্কাই করা এবং তাদের উৎসাহী করার জন্য হ্যান্ডেলিং, ল্যান্ডিং, পাকিংসহ অন্যান্য চার্জ কমানো বা মওকুফ করা যেতে পারে।