ঢাকা, ২৯ জানুয়ারি বুধবার, ২০২০ || ১৫ মাঘ ১৪২৬
LifeTv24 :: লাইফ টিভি 24
১০৬

বিশ্বসুন্দরীর মুকুট কালো তুনাজীর মাথায়

সবচেয়ে বড় শক্তি নারীশক্তি

প্রকাশিত: ১৩:০০ ১০ ডিসেম্বর ২০১৯  


মিস ইউনিভার্সের ফাইনালে জোজিবিনি তুনাজিকে প্রশ্ন করা হয়, এমন কী জিনিস আধুনিক মেয়েদের শেখানো উচিত?  উত্তরে তিনি বলেন, ‘নেতৃত্বের ক্ষমতা।’ তুনাজি বলেন, বিশ্বের সবচেয়ে বড় শক্তি নারীশক্তি। তাই প্রতিটি নারীকে সুযোগ দেওয়া উচিত যাতে সে তার বুদ্ধিমত্তার প্রকাশ ঘটাতে পারে।

জোজিবিনি তুনাজির এই উত্তরের পর আলোড়ন পড়ে যায় দর্শকাসনে। থিয়েটার ফেটে পড়ে করতালিতে। বিচারকরাও মুগ্ধ হয়ে যান।
বিশ্বের তাবত সুন্দরীদের পিছনে ফেলে স্রেফ বুদ্ধিমত্তার জোরে দক্ষিণ আফ্রিকার সুন্দরী জোজিবিনি তুনাজি জিতে নিয়েছেন সেরার মুকুট। শেষ পর্বে তার উত্তরই তাকে বিশ্বসেরার খেতাব এনে দিয়েছে।

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের জর্জিয়ার আটলান্টায় রোববার অনুষ্ঠিত হয় ৬৮তম মিস ইউনিভার্স প্রতিযোগিতার চূড়ান্ত এ আসর। এতে ‘মিস ইউনিভার্স ২০১৯’ নির্বাচিত হন দক্ষিণ আফ্রিকার ২৬ বছর বয়েসী জোজিবিনি তুনাজি। তার মাথায় সেরার মুকুট পরিয়ে দেন গত বছরের মিস ইউনিভার্স ক্যাটরিওনা গ্রে।

এবারের প্রতিযোগিতায় রানার্স আপ হয়েছেন পুয়ের্তো রিকোর ম্যাডিসন অ্যান্ডারসন। তৃতীয় হন মেক্সিকান সুন্দরী সোফিয়া আরাগন।

জমকালো আয়োজনের মধ্য দিয়ে সেরার মুকুট মাথায় পরার পর নিজের অনুভূতি ব্যক্ত করতে গিয়ে তুনাজি বলেন, আমি এমন এক দেশে বেড়ে উঠেছি, যেখানে প্রায় সব নারী দেখতে আমার মতো। সেখানকার সবার ত্বক ও চুল আমার মতোই, তবে সেখানে কখনও কাউকে এ জন্য সুন্দর মনে করা হয় না। এখন আমি মনে করি, এটি থামানোর সময় এসেছে।

তুনাজি দক্ষিণ আফ্রিকার তসলো শহরে বাস করেন। তিনি লিঙ্গভিত্তিক সহিংসতার বিরুদ্ধে বেশ সক্রিয়। এবার মিস ইউনিভার্সের ৬৮তম আসরের মূল পর্বে বিশ্বের ৯০টি দেশের প্রতিযোগীরা অংশ নেন। নানা ধাপ পেরিয়ে জমজমাট এই আসরের সেমিফাইনালে উঠে আসেন ২০ জন।

শীর্ষ ২০-এ স্থান করে নিয়েছিলেন মিস ইউনিভার্স প্রতিযোগিতায় প্রথমবারের মতো অংশ নেওয়া বাংলাদেশের শিরিন আক্তার শিলা। এর পর সেখান থেকে বেছে নেয়া হয় শীর্ষ ১০ জন প্রতিযোগীকে। চূড়ান্ত পর্বে সবাইকে পেছনে ফেলে বিজয়ীর মুকুট মাথায় তোলেন তুনাজি।