ঢাকা, ১৬ মে রোববার, ২০২১ || ২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৮
good-food
৬৬

করোনা থেকে বাঁচতে যার বিকল্প নেই

লাইফ টিভি 24

প্রকাশিত: ১৪:৫৮ ২২ এপ্রিল ২০২১  

করোনার দ্বিতীয় ঢেউ আছড়ে পড়ার পর, সমাজের দুটি চিত্র নতুন করে ফুটে উঠেছে সবার সামনে। এক, লাফিয়ে লাফিয়ে সংক্রমণ বাড়লেও কিছু মানুষ এখনও সতর্ক হচ্ছেন না। দুই, অতিরিক্ত সতর্কতা অবলম্বন করছেন কেউ কেউ। এই দুই ধরনের মানুষই বিপদ ডেকে আনছেন। 

 

বাতাসে ছড়ানো গুজবে কান দিয়ে অজান্তেই নিজেদের ক্ষতি করছেন তারা। এমন একটি গুজব হলো, ভেপার নেওয়া। অর্থাৎ গরম পানিতে ভাপ নেওয়া। ২০২০ সালে যখন  করোনা দাপট দেখাতে শুরু করল, তখন থেকে লোকমুখে ঘুরত, ভেপার নিলেই ভাইরাস মরে যাবে কিংবা গরম পানিতে অনেকক্ষণ ভাপ নিলে আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা নেই। 

 

এই ধারণা এখনও থাকলে, আপনি একশ শতাংশ ভুল, জানাচ্ছেন ডাক্তার সৌগত দাস। তিনি জানাচ্ছেন, ভেপার নেওয়ার সঙ্গে করোনার কোনও সম্পর্ক নেই। এতে আক্রান্ত হলে, ভাইরাল জ্বরের মতো সর্দি-কাশির উপসর্গ দেখা দেয়। কখনও নাক আটকে যায়, গলা খুসখুস করে, ব্যথা করে। সেক্ষেত্রে ভেপার নিলে খানিকটা স্বস্তি মিলতে পারে। কিন্তু ভাইরাস বা করোনা মারা যাবে, এটা সম্পূর্ণ ভুল ধারণা। 

 

এমনকি ভেপার নেওয়ার সময়ও অত্যন্ত সতর্ক থাকতে হবে। যেমন অতিরিক্ত গরম পানির সামনে ঝুঁকে ভাপ নেবেন না। ঈষদুষ্ণ পানিতে ভেপার নেওয়ার সময় চোখ খোলা রাখবেন না একেবারেই।

 

চোখ বন্ধ করে ভাপ নেবেন। এমনকি বাচ্চারা যখন ভাপ নেবে, সেক্ষেত্রে বড়দের একটু চোখে চোখে রাখতে হবে। চোখ খোলা রেখে ভেপার নিলে, মারাত্মক ক্ষতির সম্ভাবনা থাকে। দিনে দুই থেকে তিনবার ভেপার নেওয়া উচিত।

 

নাক বন্ধ হলে বারবার গরম পানির ভাপ কখনই নেবেন না। তাছাড়া ভেপার বেশি নিলে মুখের ত্বক অতিরিক্ত শুষ্ক হয়ে যায়। তখনও আবার অন্য সমস্যা দেখা দিতে পারে। তাই করোনার হাত থেকে বাঁচতে পরিষ্কার পরিচ্ছন্নতা বজায় রাখা ছাড়া কোনও বিকল্প নেই।

করোনাভাইরাস বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর