ঢাকা, ০৩ জুন বুধবার, ২০২০ || ২০ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭
good-food
৫৩

এনআইডি মোবাইল নম্বর পরীক্ষা করে প্রণোদনার টাকা ছাড়

লাইফ টিভি 24

প্রকাশিত: ১০:০৯ ১৭ মে ২০২০  

করোনার এই সময়ে প্রধানমন্ত্রী ঘোষিত নিম্ন আয়ের মানুষের জন্য আর্থিক সহায়তার তালিকায় অনিয়মের অভিযোগও উঠেছে। এক ব্যক্তির মোবাইল নম্বর একাধিক ব্যক্তির নামের তালিকার পাশে থাকার অভিযোগ নিয়ে হৈচৈ পড়ে যায়। সরকারের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, জাতীয় পরিচয়পত্র ও মোবাইল নম্বর ভেরিফাই করেই প্রত্যেক ব্যক্তির টাকা ছাড় করা হচ্ছে। 

শনিবার প্রধানমন্ত্রীর ডেপুটি প্রেস সেক্রেটারি আশরাফুল আলম খোকন তাঁর ফেসবুকের এক পোস্টে লিখেছেন, করোনাকালীন সংকটে নিম্ন আয়ের ৫০ লাখ পরিবারের জন্য দুই হাজার ৫০০ টাকা করে ঈদ উপহার দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এই তালিকা তৈরি করেছেন স্থানীয় প্রশাসন, ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান, মেম্বারসহ গণ্যমান্য ব্যক্তিরা। হবিগঞ্জ, বাগেরহাটের দুটি ইউনিয়নসহ কয়েকটি জায়গায় কিছু অনিয়ম ধরা পড়েছে। শতাধিক নামের বিপরীতে এক বা দুটি ফোন নম্বর ব্যবহার করা হয়েছে। অর্থাৎ মোবাইল ব্যাংকিংয়ের মাধ্যমে টাকা গেলে সবার টাকা ওই এক বা দুটি নম্বরের ব্যক্তিরা পেয়ে যাবেন। দেশে মেম্বার ৪১ হাজার ১৩৯ জন, নারী মেম্বার ১৩ হাজার ৭১৩ জন, ইউপি চেয়ারম্যান চার হাজার ৫৭১ জন। এর মধ্যে চার-পাঁচজন এই অপকর্মটি করেছেন।

খোকন আরো লেখেন, ‘প্রথমত এই অনিয়মটি স্থানীয় পর্যায়ে সরকারই ধরেছে। এমন না যে যাচাই-বাছাই শেষে ওরা টাকা পেয়ে গেছে। আর যদি যাচাই-বাছাই শেষে এই রকম তালিকা কেন্দ্রে আসেও তাও তাদের টাকা পাওয়ার কোনো সুযোগ নেই। কারণ নামের সঙ্গে ভোটার আইডি নম্বর ও মোবাইল নম্বর অটোমেটেড সিস্টেমে ভেরিফাই করে এরপর টাকা ছাড় দেওয়া হচ্ছে। ১৭ কোটি মানুষের দেশে চার-পাঁচজন দুর্নীতিবাজ এ রকমটি ঘটাবে না, তা ভাবার কোনো অবকাশ নেই। ঘটনার প্রতিকার হয়েছে কি না সেটা দেখেন? এখন আর কোনো চাল চুরির খবর শোনেন? সব বন্ধ হয়ে গেছে। শেখ হাসিনার ওপর আস্থা রাখেন। দেশ ভালো থাকবে, আপনারাও ভালো থাকবেন।’

বাগেরহাটের শরণখোলায় প্রধানমন্ত্রী ঘোষিত মানবিক সহায়তার তালিকায় ৪০ জন উপকারভোগীর নামের পাশে নিজের মোবাইল নম্বর দেওয়া সেই ইউপি সদস্যকে শোকজ করেছে উপজেলা প্রশাসন।

বাংলাদেশ বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর